July 27, 2017, 10:43 pm | ২৭শে জুলাই, ২০১৭ ইং,বৃহস্পতিবার, রাত ১০:৪৩

‘১৮ দল অন্যের কাঁধে বন্দুক রেখে সুবিধা নিতে চায়’

172ঢাকা জার্নাল: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দিন খান আলমগীর বলেছেন, আঠারো দল সবসময়ই অন্যের কাঁধে বন্দুক রেখে সুবিধা নিতে চায়। লংমার্চে তারা মিশে গিয়ে নৈরাজ্য করে নিজেদের মুখোশ উন্মোচিত করতে পারে। তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে যে যে পদক্ষেপ নেয়া দরকার তার সবই সরকার গ্রহণ করবে।”

বুধবার সচিবালয়ে দেশের  বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, “হেফাজতে ইসলামের ডাকা আগামী ৬ এপ্রিলের লংমার্চে ১৮ দলীয় জোট মিশে গিয়ে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা হলে দায়-দায়িত্ব বিএনপির চেয়ারপাসন বেগম খালেদা জিয়াকে বহন করতে হবে।

হেফাজতে ইসলামের কর্মসূচিতে সরকারের বাধা দেয়ার ইচ্ছা নেই মন্তব্য করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “সংবিধান সম্মত যে কোনো শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি যে কেউ পালন করতে পারে।”

এছাড়াও রাজশাহীর ঘটনায় সংশ্লিষ্ট নেতাদের গ্রেফতার করায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর দায়িত্ব পালন সম্পর্কে সন্তোষ প্রকাশ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়। পুলিশ অফিসারের ওপর যারা হামলা করেছে, টিভি ফুটেজ দেখে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলেও জানান মন্ত্রী।

তিনি আরো বলেন, “বিএনপি-জামায়াতের হরতালসহ বিভিন্ন কর্মসূচিতে ১০ জন পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার নিহত পুলিশ সদস্যদের পরিবারকে প্রধানমন্ত্রী আর্থিক সহায়তা দেবেন।”

“ধর্মের প্রতি যারা আঘাত হেনেছে তাদের ইতোমধ্যে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। অন্যদের ধরার অভিযান চলছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।”

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, খাদ্যমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক, নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান, বন ও পরিবেশমন্ত্রী হাছান মাহমুদ, আইন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট  কামরুল ইসলাম, স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবীর নানক, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলম হানিফ ও সরকারদলীয় সংসদ সদস্য ইলিয়াস আলী।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল