June 23, 2017, 7:48 pm | ২৩শে জুন, ২০১৭ ইং,শুক্রবার, সন্ধ্যা ৭:৪৮

পুঁজিবাজারে আসছে টেলিটক ও জাহিন স্পিনিং

531618_588205087859074_1358949042_nঢাকা জার্নাল: খুব শিগগিরই পুঁজিবাজারে আসছে দেশের একমাত্র সরকারি মোবাইল কোম্পানি টেলিটক ও জাহিন স্পিনিং লিমিটেড। কোম্পানি দুটি বাজারে আসার আগে সব ধরনের প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে শেষ করেছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

জানা গেছে, টেলিটক প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) ছেড়ে পুঁজিবাজার থেকে ৬০০ কোটি টাকা তুলবে।

টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মুজিবুর রহমান জানান, গত বছর সংসদে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী সাহারা খাতুনের ঘোষণার পর এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এ বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া যাবে বলে আমরা আশা করছি। পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হলে জনগণ এর সঙ্গে আরো বেশি সম্পৃক্ত হবে। আর জনগণ মালিক হলে কোম্পানি আরো বেশি স্থায়ী হবে।

তিনি বলেন, “দেশের অন্যান্য যে কোনো সরকারি কোম্পানির তুলনায় টেলিটক অপেক্ষাকৃত বেশি স্বচ্ছতা এবং জবাবদিহিতার সঙ্গে কাজ করছে। এ পর্যন্ত কেউ টেন্ডারবাজির অভিযোগ তুলতে পারেনি। নিজস্ব আয়ে পরিচালিত হচ্ছে টেলিটকের সার্বিক কার্যক্রম। গত বছর প্রায় ১০ কোটি টাকা লাভ হয়েছে। অবশ্য এটা পরিচালন মুনাফা। এখন পর্যন্ত নিট মুনাফায় আসতে পারেনি টেলিটক।”

অন্যদিকে বাজার থেকে অর্থ তুলতে প্রক্রিয়া শুরু করেছে জাহিন স্পিনিং লিমিটেড। ইতিমধ্যে প্রি-আইপিও প্লেসমেন্টের মাধ্যমে কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন বাড়ানো হয়েছে বলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, প্লেসমেন্টের মাধ্যমে ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে চার কোটি ৩৫ লাখ শেয়ার ছাড়া হবে। এর মধ্যে দুই কোটি ৩৫ লাখ শেয়ার বিদ্যমান উদ্যোক্তাদের কাছে এবং বাকি দুই কোটি শেয়ার সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে বিক্রি করা হবে।

প্রি-আইপিও প্লেসমেন্টের মাধ্যমে মূলধন সংগৃহীত হলে কোম্পানিটির পরিশোধিত মূলধনের পরিমাণ ৫২ কোটি ৮০ লাখ টাকায় উন্নীত হবে। এ ছাড়াও প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে এক কোটি ২০ লাখ শেয়ার ছেড়ে পুঁজিবাজার থেকে ১২ কোটি টাকা তোলার পরিকল্পনা রয়েছে কোম্পানিটির।

সুতা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান জাহিন স্পিনিং মিলস ২০০৭ সালে একটি প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি হিসাবে যাত্রা শুরু করে। ২০১২ সালে এটি পাবলিক লিমিটেড কোম্পানিতে রূপান্তরিত হয়। কোম্পানির বার্ষিক উৎপাদনক্ষমতা ৭২০ টন। ২০১২ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর শেষে আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয়ের পরিমাণ তিন টাকা ৭৩ পয়সা। কোম্পানিটির ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে কাজ করবে মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল