June 23, 2017, 2:34 am | ২২শে জুন, ২০১৭ ইং,শুক্রবার, রাত ২:৩৪

গোলাম আযমের রায় যেকোনো দিন

imageঢাকা জার্নাল: স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে জামায়াতে ইসলামীর সাবেক আমির গোলাম আযমের মামলার রায় যেকোনো দিন ঘোষণা করা হবে।

রাষ্ট্রপক্ষের পক্ষ থেকে বুধবার আসামী পক্ষের আইনজীবীদের যুক্তি-তর্কের জবাব দেওয়ার পর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এই রায় অপেক্ষমাণ রেখেছে।

এই মামলায় পাঁচ ধরণের অভিযোগের আওতায় মোট ৬১টি অপরাধের জন্যে গোলাম আযমকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পর গোলাম আযম ১৯৭৮ সালে বাংলাদেশে ফেরেন।

১৯৯৯ সালে তিনি জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশের আমিরের পদ থেকে অবসরে গেলেও দলটির তাত্ত্বিক নেতা হিসেবে তিনি সম্পৃক্ত ছিলেন।

বাংলাদেশে ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় শান্তি কমিটি, রাজাকার, আল-বদর গঠনে নেতৃত্ব দেয়ারও অভিযোগে তার বিচারের দাবি ছিল দীর্ঘ দিনের।

গোলাম আযম জামায়াতে ইসলামীর তাত্ত্বিক নেতা বা গুরু হিসেবেও পরিচিত।

golumAzamমানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ২০১২ সালের ১১ই জানুয়ারি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে হাজির হলে, বিচারকরা তার জামিনের আবেদন নাকচ করে দিয়ে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

ওই দিনই তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের প্রিজন সেলে স্থানান্তর করা হয় এবং তারপর থেকে তিনি সেখানেই আছেন।

গতকাল মঙ্গলবার জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের বিরুদ্ধে মামলার রায় অপেক্ষমাণ রাখে ট্রাইব্যুনাল-২।

এর আগে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল জামায়াতে ইসলামীর আরেক সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল কাদের মোল্লাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও সাবেক সদস্য আবুল কালাম আজাদকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল