March 26, 2017, 8:48 pm | ২৬শে মার্চ, ২০১৭ ইং,রবিবার, রাত ৮:৪৮

লিফটের দরজা ভেঙে স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে উদ্ধার

nasim_ঢাকা জার্নাল: সচিবালয়ের লিফটে আটকা পড়া স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমকে উদ্ধার করেছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

সোমবার বিকেলে সচিবালয়ে ২ ও ৩ নম্বর ভবনের মাঝের লিফটে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তিন নম্বর ভবনের তৃতীয় তলার লিফটের দরজা ভেঙে  তাকে উদ্ধার করেন।

সচিবালয়ে তিন নম্বর ভবনের চতুর্থ তলায় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর অফিস।  ২ ও ৩ নম্বর ভবনের মাঝখানের লিফট দিয়েই ওঠানামা করেন মন্ত্রী।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,  স্বাস্থ্যমন্ত্রী  বিকেল পৌনে ৪টার দিকে তার কার্যালয় থেকে নামার সময় লিফটে আটকা পড়েন। মন্ত্রীর আটকা পড়ার খবর ছড়িয়ে পড়ার পর মন্ত্রণালয়ে হৈচৈ পড়ে যায়। চারতলা ভবনের প্রতি তলার লিফটের সামনে ভিড় জমে যায়। কেউই লিফট খুলে মন্ত্রীকে উদ্ধার করতে পারছিলেন না। পরে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সোয়া ৪টার দিকে তৃতীয় তলায় লিফটের দরজা ভেঙে মন্ত্রীসহ অন্যদের উদ্ধার করেন।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক অফিস সহকারী নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, মন্ত্রীকে যখন উদ্ধার করা হয় তখন তিনি আতঙ্কে থরথর করে কাঁপছিলেন।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের সিনিয়র স্টেশন অফিসার খন্দকার আবদুল জলিল বলেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী  লিফটে আটকা পড়েছেন, এ খবর শুনে আমরা চলে এসেছি। তৃতীয় তলার দরজা ভেঙে আমরা মন্ত্রীকে উদ্ধার করেছি। লিফটে মন্ত্রীসহ সাতজন আটকা পড়েছিলেন। আমরা ধারণা করছি, বৈদ্যুতিক গোলযোগের জন্য লিফটি আটকে থাকতে পারে।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের তথ্য কর্মকর্তা পরীক্ষিৎ চৌধুরী বলেন, অফিস থেকে নামার সময় মন্ত্রী লিফটে আটকা পড়েন। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে স্যারকে উদ্ধার করেন। এরপর মন্ত্রী শেরে বাংলা নগরে মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটে বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবসের আলোচনা সভায় অংশ নিতে চলে গেছেন। লিফটি কারা, কীভাবে স্থাপন করেছেন তা খতিয়ে দেখা উচিত।

এদিকে সচিবালয়ে মন্ত্রীকে লিফট থেকে উদ্ধারের ছবি মোবাইলে ধারণ করায় এক সাংবাদিকের  ফোন কেড়ে নেন  এক পুলিশ সদস্য। পরে পুলিশের উপস্থিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য কর্মকর্তা পরীক্ষিৎ চৌধুরী ছবি ডিলিট করে ফোন ফেরত দেন।

ছবি ডিলিট করার যুক্তি দেখিয়ে পরীক্ষিৎ চৌধুরী বলেন, মন্ত্রী মহোদয় হার্টের রোগী। ওই সময় এ ধরনের ছবি তোলা ঠিক হয়নি। নিউজ করেন, তাতে অসুবিধা নেই। কারা এই লিফট স্থাপন করেছে তা নিয়েও লেখেন।

ঢাকা জার্নাল, অক্টবর ১০, ২০১৬।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল