June 22, 2017, 8:15 pm | ২২শে জুন, ২০১৭ ইং,বৃহস্পতিবার, রাত ৮:১৫

আগরতলা বাংলাদেশ-ভারতের উন্নয়নের চাবিকাঠি: এএনআই বিশ্লেষণ

asina2ঢাকা জার্নাল : বাংলাদেশ থেকে ভারতে ব্যান্ডউইথ ও ভারতের ত্রিপুরার পালাটানা বিদ্যুৎ প্রকল্প থেকে ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সরবরাহ বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ককে আরো দৃঢ় করবে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে দুই দেশের মধ্যে এই সরবরাহের উদ্বোধন করেন।
ত্রিপুরা বাংলাদেশের উচ্চগতি সম্পন্ন সাবমেরিন ক্যাবল ইন্টারনেট নেটওয়ার্কের সঙ্গে ১০ জিবিপিএস ব্যবহার করার জন্য যুক্ত হয়েছে। বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের দ্বিতীয় বৃহত্তম ইন্টারনেট প্রবেশের পদ্ধতি এটি।
দুই দেশের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, ভারত থেকে বাংলাদেশে ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ রফতানি বাংলাদেশের উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করবে। অন্যদিকে ভারতের পশ্চিম ও দক্ষিণাঞ্চল ডিজিটাল যুগে প্রবেশ করবে। বাংলাদেশি ব্যান্ডউইথ ব্যবহারের মধ্য দিয়ে আসাম, ত্রিপুরা ও সিকিমের মতো আটটি রাজ্যের তরুণরা উৎসাহিত হয়ে ডিজিটাল যুগে প্রবেশ করবে।
অন্যদিকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এই বিদ্যুৎ ও ব্যান্ডউইথ সহায়তার মাধ্যমে বাংলাদেশ ও ভারত নতুন একটি মাত্রা স্পর্শ করলো। এই বিদ্যুৎ আমদানির মাধ্যমে বাংলাদেশের বিদ্যুৎ সংকটের সমাধান হবে। ব্যান্ডউইথের মাধ্যমে ভারতের ত্রিপুরা ও দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকায় আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে সহায়তা করবে। প্রতিবেশি দুই দেশের মধ্যে এই সহায়তা দুই দেশের বন্ধনকে আরো শক্তিশালী করবে।
ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার বলেন, নতুন করে ইন্টারনেট-বিদ্যুতের সরবরাহ বাংলাদেশ ভারতের সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাবে। বাংলাদেশে বিদ্যুৎ সংকটের সমাধান হবে অপর দিকে ভারতের নাগরিকরা আধুনিক পদ্ধতি ব্যবহার করে আরো এগিয়ে যাবে। এএনআই নিউজের নিবন্ধ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল