June 29, 2017, 4:28 am | ২৮শে জুন, ২০১৭ ইং,বৃহস্পতিবার, রাত ৪:২৮

অনন্ত-বর্ষার বিচ্ছেদ

borsha-ananta20130326032426ঢাকা জার্লনাল: পারস্পরিক সমঝোতার ভিত্তিতে চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় জুটি অনন্ত জলিল ও বর্ষা আনুষ্ঠানিকভাবে সম্পর্কের ছেদ টানলেন। এখন থেকে দু’জনের পথ দু’দিকে। যদিও এটা সংসার জীবনে। সিনেমা করার বেলা হয়তো কোন দিকে যাবেন তা সময় বলে দেবে।

মঙ্গলবার সংবাদ মাধ্যমকে দু’জনই তাদের বিবাহ বিচ্ছেদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ২২ মার্চ দুপুরে স্ত্রী আফিয়া নুসরাত বর্ষার নামে মোহাম্মদপুর থানায় লিখিত অভিযোগ (সাধরণ ডায়েরি) করেন নায়ক অনন্ত। এরপর রাতে মোহাম্মদপুর থানায় এসে অনন্তের বিরুদ্ধে জিডি করেন বর্ষা। জিডি দায়েরের একদিন পর তারা প্রত্যাহারও করে নেন। অবশেষে অনন্ত-বর্ষার এই মনোমালিন্যের এক পর্যায়ে এ খবর এলো।

২০১০ সালে ‘খোঁজ—দ্য সার্চ’ চলচ্চিত্র দিয়ে রুপালি পর্দায় অভিষেক হয় অনন্ত-বর্ষা জুটির। এর পরের বছর তাঁরা বিয়ে করেন। এ দম্পতি ‘স্পিড’, ‘মোস্ট ওয়েলকাম’, ‘নিঃস্বার্থ ভালোবাসা’ ছবিতে জুটিবদ্ধ হন। সর্বশেষ তারা দুজন অভিনয় করেন ‘মোস্ট ওয়েলকাম-২’ ছবিতে।ananta-jalil-and-borsha-3-300x184

জানা গেছে, স্ত্রী বর্ষার চারিত্রিক সমস্যার অভিযোগ তুলে বিভিন্ন সময় তার সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়িতে পড়তেন অনন্ত। এরপর শুক্রবার অনেকটা ঝগড়া করেই বাসা থেকে বের হন বর্ষা। পরে মোহাম্মদপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন অনন্ত।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, বর্ষা সেদিন রাতে জিডিতে অভিযোগ করেন, তার স্বামী অনেকদিন ধরেই তাকে মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন করে আসছেন। বাধ্য হয়েই মোহাম্মদপুর থানায় এসে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন তিনি।

ঢাকা জার্নাল, মার্চ ২৬, ২০১৩

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল