June 28, 2017, 11:35 am | ২৮শে জুন, ২০১৭ ইং,বুধবার, সকাল ১১:৩৫

হরতালের আগেই ১৯ যানে অগ্নিসংযোগ

bus-fireঢাকা জার্নাল: বিএনপি নেতৃত্বাধীন বিরোধী জোটের টানা ৪৮ ঘণ্টা হরতাল শুরুর আগের দিন ঢাকায় অন্তত উনিশটি জায়গাতে যানবাহনে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে।

তবে এসব ঘটনায় হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি।

গাড়িতে আগুনের পাশাপাশি ঢাকা ও চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন স্থানে হাতবোমার বিস্ফোরণও ঘটানো হয়েছে। হাতবোমা বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাড়ির কাছেও।

পুরানা পল্টন: রাজধানীর বায়তুল মোকাররমের উত্তর পাশে প্রথমে রোববার দুপুর পৌনে একটার দিকে নিউ ভিশন পরিবহণের যাত্রীবাহী একটি বাসে আগুন দেয়া হয়।  এতে একজন যাত্রী আহত হন। বাসটি মতিঝিল থেকে মিরপুরের দিকে যাচ্ছিল।

মালিবাগ: প্রায় একই সময় মালিবাগের আয়েশা শপিং কমপ্লেক্সের কাছে বলাকা পরিবহণের একটি বাসে আগুন দেয়া হয়। এতে হতাহতের কোনো খবর জানা যায়নি।

ফার্মগেট: বেলা দুইটার দিকে দিকে ফার্মগেটের আনন্দ সিনেমা হলের কাছে ছয় নম্বরের একটি বাসে আগুন দেয়া হয়। বাসটির বেশির ভাগ অংশ পুড়ে গেছে।

নয়া পল্টন: প্রায় একই সময়ে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে একটি পিকআপ ভ্যানে আগুন দেয়া হয়। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা পৌঁছানোর আগেই আগুন নিভিয়ে ফেলে স্থানীয় লোকজন।

কল্যাণপুর: রাজধানীর কল্যাণপুরে হানিফ পেট্রল পাম্পর সামনে বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে সংগ্রাম পরিবহণ নামের একটি দূরপাল্লার বাসে আগুন দেয়া হয়। প্রাথমিকভাবে এ ঘটনায় হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি বলে পুলিশ সূত্র নিশ্চিত করেছে।

কাপ্তানবাজার: দুপুরের দিকে কাপ্তানবাজারে ঢাকা-মুন্সীগঞ্জ রুটের একটি বাসে আগুন দেয়া হয়। বাসটি স্ট্যান্ডে ছিল। দুর্বৃত্তরা আকস্মিকভাবে এসে এতে আগুন দেয়  বলে জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা।

কারওয়ান বাজার: বিকেল পাঁচটার দিকে কারওয়ান বাজারে সিএ ভবনের সামনে বিকল্প পরিবহণের একটি বাসে যাত্রীবাহী একটি বাসে আগুন দেয়া হয়। বাসটি মিরপুর থেকে গুলিস্তানের দিকে যাচ্ছিল। এ ঘটনার পর কারওয়ান বাজারে দায়িত্বরত র্যা ব ও পুলিশ সদস্য এবং সাধারণ জনতা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

এছাড়াও কাকরাইল, খিলগাঁও, চানখার পুল, বায়তুল মোকাররম এলাকাসহ রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে এসব বিভিন্ন ধরনের পরিবহনে আগুন দেয়া হয়েছে।

ঢাকার বাইরেও কয়েকটি জেলা থেকে গাড়ি ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের খবর পাওয়া গেছে।

রাত ১০টার দিকে টঙ্গী থানাধীন গাজীপুরা এলাকায় একটি তৈরি পোশাক কারখানার স্টাফ বাসে আগুন দেয়া হয়।

টঙ্গী ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. জাকির হোসেন বলেন, বাসটিতে তরল দাহ্য পদার্থ ঢেলে আগুন দেয়া হয়েছে। খবর পেয়ে দমকল কর্মীরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

শেরপুরের শহরের গির্দানারায়ণপুরে একটি প্রাইভেটকারে আগুন দেয়া হয়। কয়েকটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয় নিউ মার্কেট এলাকায়।

গণমাধ্যমের খবরে জানানো হচ্ছে, হরতালের সমর্থনে এসব যানবাহনে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে।

হরতালের সমর্থকরাই গাড়িতে আগুন দিয়েছে বলে পুলিশের দাবি।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে একটি সমাবেশে ককটেল বিস্ফোরণ ও একে কেন্দ্র করে সংঘটিত সহিংসতার পর পুলিশ দলটির যেসব নেতাকর্মীকে আটক করে তাদের মুক্তির দাবিতে আজ সকাল থেকে টানা ৪৮ ঘণ্টা হরতালের একটি পূর্বঘোষিত কর্মসূচী শুরু করতে যাচ্ছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল