June 28, 2017, 7:50 am | ২৮শে জুন, ২০১৭ ইং,বুধবার, সকাল ৭:৫০

এখনও আফসোসে পুড়ছেন মাশরাফি

ঢাকা জার্নাল : বৃষ্টির কারণে ভেসে গেছে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় ওয়ানডে। তিন ম্যাচ সিরিজ এখন ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে বাংলদেশ। মঙ্গলবারের ম্যাচটি জিতলে ডাম্বুলাতেই সিরিজ নিশ্চিত হতো টাইগারদের। কিন্তু ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে ৩১১ রানে লঙ্কানদেন আটকে দিলেও বৃষ্টিতে ভেসে যায় ম্যাচ।

শ্রীলঙ্কার মাটিতে অবশ্য ‍৩০০ ছাড়ানো রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড একটিও নেই। বাংলাদেশকে জিততে হলে ইতিহাস গড়তে হতো। মাশরাফি সেটা জেনেও আফসোস নিয়ে কলম্বোর উদ্দেশে ছেড়েছেন ডাম্বুলা।

যাওয়ার আগে ‘বাংলা ট্রিবিউন’কে এক প্রশ্নের জবাবে মাশরাফি বলেছেন, ‘এখন তো আফসোস হচ্ছেই। এ রকম উইকেটে এই রান কিছুই না। আমরা কলম্বোতে অনুশীলন ম্যাচে যে রকম উইকেটে খেলেছিলাম, গতকাল (মঙ্গলবার) একই উইকেট ছিল। কোনও পার্থক্য ছিল না। সে দিন যদি আমরা ৩৫০ রানের মত করে করতে পারি, তাহলে কালকেও (মঙ্গলবার) পারতাম।’

তিনি আরও যোগ করেছেন, ‘একটা সময় তো মনে হয়েছিল ৩৩০-৩৪০-এর ঘরে যাবে রান। এরপর ওই টার্গেট পাওয়ার পর আমরা আত্মবিশ্বাসী ছিলাম। তামিম-সৌম্য তো ব্যাট-প্যাডে তৈরি ছিল। পুরো ম্যাচ হলে আমাদের জয়ের ভালো সুযোগ ছিল।’

মাশরাফি যখন আফসোস করে বলছিলেন তার কথাগুলো, তখনই পুরো দল তৈরি হচ্ছে কলম্বো যাত্রার জন্য। তামিম হোটেলের বিদায় কার্যক্রম শেষে হাসি মুখে সাংবাদিকদের দিকে তাকিয়ে বললেন, ‘ম্যাচটি খুবই জমজমাট হতো। হার-জিত বড় কথা না, দুই দলের মধ্যে ভালো লড়াই হতো বলে আমি মনে করি।’

‘হোটেল আলিয়া রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা স্টেনারে’ সকাল ১০টার দিকে একে একে নাস্তা সেরে টিম বাসে উঠছিলেন। মুস্তাফিজ আর মেহেদী হাসান মিরাজ ব্যস্ত ছিলেন ব্যক্তিগত কাজে। অন্য খেলোয়াড়রা সবাই নাস্তা খাওয়ার পাশাপাশি আড্ডায় মেতে উঠেছিলেন।

স্থানীয় সময় সকাল ১১টায় বাস ছেড়ে আসে কলম্বোর উদ্দেশে। এরপর দুপুরের কিছু পরে কলম্বোর ‘তাজ সমুদ্র’ হোটেলে উঠেছেন মাশরাফিরা। পুরো দিন বিশ্রাম নিয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় অনুশীলন নেমে পড়বেন সিংহলিজ স্পোর্টস ক্লাব গ্রাউন্ডে। তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে শুরুর আগে আরও একটি অনুশীলন সেশন পাবেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা।

ঢাকা জার্নাল, মার্চ ২৯, ২০১৭।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল