March 28, 2017, 2:23 pm | ২৮শে মার্চ, ২০১৭ ইং,মঙ্গলবার, দুপুর ২:২৩

মাশরাফিদের সঙ্গে কাজ করতে চান ওয়ালশ

oalosঢাকা জার্নাল:ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ২০১৯ আইসিসি বিশ্বকাপ পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং কোচের দায়িত্বে থাকবেন ক্যারিবিয়ান সাবেক ক্রিকেটার কোর্টনি ওয়ালশ। কোচিং ক্যারিয়ারে খুব বেশি সমৃদ্ধ না হলেও ক্রিকেট ক্যারিয়ার দারুন সমৃদ্ধ তার। ক্রিকেটার হিসেবে তিনি সব সময় ছিলেন সেরাদের একজন। বৃহস্পতিবার সকালে বিসিবি ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড থেকে সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ওয়ালশের কোচ হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

ওই বিবৃতিতে নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন মাশরাফিদের নতুন এই কোচ। মাশরাফিদের দায়িত্ব নেওয়ার জন্য মুখিয়ে আছেন অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটার। বুধবার কথার প্রসঙ্গে দলের সিনিয়র এক ক্রিকেটার জানিয়েছিলেন, ওয়ালশকে কোচ হিসেবে পেলে তারা উপকৃত হবেন। কেননা তার কাছ থেকে ছেলেদের শেখার অনেক কিছুই থাকবে। উনি কোচ হলে সত্যিই আমাদের জন্য দারুন হবে। শিষ্য-গুরুর রোমাঞ্চকর অনুভূতির সংমিশ্রনে ওয়ালশের বাংলাদেশে যে দারুন সময় কাটবে, এটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। তাইতো তিনি জানিয়েছেন, ছেলেদের দায়িত্ব নিতে মুখিয়ে আছেন তিনি। তিনি বলেন, ‘গত কয়েক বছর ধরেই বাংলাদেশের ক্রিকেটকে আমি দেখছিলাম, তারা অনেক উন্নতি করেছে। এখানে বেশ কিছু ট্যালেন্ট রয়েছে। হাথুরুসিংহে ছেলেদের নিয়ে দারুন সব কাজ করে চলেছেন। আশা করি, আমি এতে যোগ দিয়ে ছেলেদের মধ্যে ইতিবাচক কিছু পরিবর্তন আনতে পারবো। সবমিলিয়ে বোলিং কোচ হিসেবে কাজ করতে আমি মুখিয়ে আছি।’

স্যামি-গেইলেদের নির্বাচক হিসেবে ছিলেন ওয়ালশ। বাংলাদেশ থেকে এমন প্রস্তাব পেয়েই উচ্ছ্বসিত ছিলেন বলে জানান জীবন্ত এই কিংবদন্তী। তিনি বলেন, ‘ওখানে নির্বাচক হিসেবে আমি আমার কাজটা দারুন উপভোগ করেছি। সুযোগটা দেওয়ার জন্য ওদেরকে ধন্যবাদ জানাই। অবশ্যই ওয়েস্ট ইন্ডিজই আমার ঘর, তবে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রতিভাবান একটি দলের সঙ্গে কোচিংয়ে নতুন দিকে যাওয়ার সুযোগ এটি। এই সুযোগ আমি হাতছাড়া করতে চাইনি।’

উল্লেখ্য, হিথ স্ট্রিক গত মে মাসের শেষ দিকে জানিয়ে দেন, চুক্তি নবায়ন করছেন না। তার পর থেকেই বোলিং কোচের সন্ধানে ছিল বিসিবি। শেষ পর্যন্ত টাইগারদের কোচ হিসেবে কোর্টনি ওয়ালশকেই বেছে নিলো বিসিবি। তিনি টেস্ট ইতিহাসে ৫০০ উইকেট স্পর্শ করা প্রথম বোলার। ১৩২ টেস্টে তার উইকেট সংখ্যা ৫১৯টি। ২০৫ ওয়ানডেতে উইকেট ২২৭টি।

ঢাকা জার্নাল, সেপ্টেম্বর ০১, ২০১৬।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল