May 26, 2017, 10:39 pm | ২৬শে মে, ২০১৭ ইং,শুক্রবার, রাত ১০:৩৯

অন্তর্বাস বিতর্ক, অভিনব প্রতিবাদ

priya_Malickঢাকা জার্নাল: আবারও সেন্সর বোর্ডের সিদ্ধান্তে প্রতিবাদী বলিউড। এবার এ নিয়ে অভিনব প্রতিবাদ জানালেন রিয়েলিটি শো ‘বিগ বস-নাইন’ প্রতিযোগী প্রিয়া মালিক।

সম্প্রতি সিদ্ধার্থ মালহোত্রা এবং ক্যাটরিনা কাইফের বার বার দেখো সিনেমার কয়েকটি দৃশ্য নিয়ে আপত্তি জানায় ভারতীয় সেন্সর বোর্ড কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে একটি দৃশ্যে অন্তর্বাস দেখা যাওয়ায় আপত্তি তোলা হয়। এছাড়া একটি কাল্পনিক অ্যাডাল্ট কমেডি চরিত্র এবং সিদ্ধার্থ-ক্যাটরিনা জুটির চুমু নিয়েও আপত্তি তুলেছে সেন্সর বোর্ড।

এদিকে অনেকদিন ধরেই বলিউডের বিভিন্ন সিনেমায় কাঁচি চালিয়ে আসছে ভারতীয় সেন্সর বোর্ড। এ নিয়ে নিজেদের অসন্তোষও প্রকাশ করেছেন বলিউড নির্মাতা এবং কলাকুশলীরা।

বার বার দেখো সিনেমায় অন্তর্বাস নিয়ে ভারতীয় সেন্সর বোর্ড আপত্তি জানানোর পর অন্তর্বাস ছাড়া পোশাক পরে এর প্রতিবাদ জানিয়েছেন প্রিয়া। ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি পোস্ট করে এর ক্যাপশন হিসেবে তিনি লিখেছেন, ‘অন্তর্বাসের দেখা যাওয়ায় সেন্সর বোর্ড ক্যাটরিনার সিনেমার দৃশ্য বাদ দিচ্ছে। সম্ভবত আমাদের সমাজে অন্তর্বাস খুব একটা শোভন নয়। তাই এটিকে বাদ দিলাম। এবার আমিও তাদের মতো।’

কিছুদিন আগে উড়তা পাঞ্জাব সিনেমা নিয়ে ভারতীয় সেন্সর বোর্ডের সঙ্গে সমস্যা দেখা দিলে বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়। এরপর বলিউডের বিভিন্ন কলাকুশলী এ নিয়ে বক্তব্য দেন।

তিনবার ভারতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী কঙ্গনা রাণৌত দিল্লিতে অনুষ্ঠিত একটি অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে উড়তা পাঞ্জাব নিয়ে বলেছিলেন, ‘এই সিনেমা নিয়ে যা চলছে, তাতে আমার কুইন সিনেমার একটি দৃশ্যের কথা মনে পড়ছে। সেই দৃশ্যে আমার অন্তর্বাস বিছানায় পড়েছিল। একদিন পরিচালক আমাকে ডেকে বললেন,  সেন্সর থেকে অন্তর্বাসের দৃশ্যটি ঝাপসা করতে হবে। অথচ ওই দৃশ্যটির জন্য আমরা অনেক পরিশ্রম করেছিলাম। লাজপথ নগর থেকে সিনেমায় ব্যবহৃত অন্তর্বাস নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তখন সেন্সর বোর্ডের এই সিদ্ধান্তে অবাক হয়েছিলাম। অন্তর্বাস কেন বিপদ হিসেবে দেখা হয়? একজন মেয়ের অন্তর্বাস তো সমাজের জন্য বিপজ্জনক নয়!’

বার বার দেখো সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন নিথিয়া মেহরা। প্রযোজনা করছেন করণ জোহর, রিতেশ সিধওয়ানি এবং ফারহান আখতার। আগামী ৯ সেপ্টেম্বর সিনেমাটি মুক্তির কথা রয়েছে।

ঢাকা জার্নাল, আগস্ট ৩০, ২০১৬।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল