March 30, 2017, 10:54 am | ৩০শে মার্চ, ২০১৭ ইং,বৃহস্পতিবার, সকাল ১০:৫৪

জঙ্গি দমনে ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠনের উদ্যোগ

flagঢাকা জার্নাল :জঙ্গি-সন্ত্রাসবাদ প্রতিরোধে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে জঙ্গিবাদ সম্পর্কিত তথ্য বিনিময়ের জন্য যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠনের্ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার ভারতের তথ্যমন্ত্রী ভেঙ্কাইয়া নাইডু এবং দিল্লির নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

হাসানুল হক ইনু বলেন, তথ্য বিনিময়ের জন্য শিগগিরই একটি যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ তৈরি করতে আমরা সম্মত হয়েছি। এ বিষয়ে একটি সমঝোতা স্মারক সইয়ের প্রক্রিয়াও এগিয়ে চলছে।

তিনি বলেন, রাজনৈতিকভাবে বৈশ্বিক সন্ত্রাসবাদ ও মৌলবাদ মোকাবিলা করতে হবে। এ কাজ কেবলমাত্র আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নয়। সঠিক তথ্যের যথাযথ প্রাপ্তি নিশ্চিত করা গেলে বিশ্ব থেকে সন্ত্রাসবাদ ও মৌলবাদ হটানো যাবে।

স্থানীয় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের সাম্প্রতিক জঙ্গিবাদের পেছনে জামায়াতে ইসলামী ও পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের ইন্ধন রয়েছে। এসব ঘটনার সঙ্গে মধ্যপ্রাচ্যের জঙ্গি দল আইএসের কোনো যোগাযোগ নেই।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে ব্লগার ও অধিকারকর্মীদের ওপর ৪৩টি হামলায় জামায়াত-শিবিরের সংশ্লিষ্টতা ছিল। গোয়েন্দারা নিশ্চিত হয়েছেন, ৯০ শতাংশ নৃশংস হামলা বিএনপি-জামায়াত ঘটায়।

তথ্যমন্ত্রী জানান, ২০২০ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী। ২০২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী। এ উপলক্ষে বাংলাদেশ ও ভারত যৌথভাবে ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের ওপর একটি তথ্যচিত্র ও চলচ্চিত্র নির্মাণ করবে। ভবিষ্যতে ইতিহাস বিকৃতি ও মিথ্য প্রচার রোধে এসব সহায়তা করবে।

সন্ত্রাস ও মৌলবাদ ধ্বংসের মাধ্যমে নতুন বাংলাদেশ ও দেশের ইতিহাস আবিষ্কারের অঙ্গিকার করেন মন্ত্রী। পাশাপাশি বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধে আত্মত্যাগ করা ৮ হাজার ভারতীয় সেনা সদস্যকে স্বীকৃতি দিতে দিল্লিকে তাদের বিস্তারিত পরিচয় জানানোর অনুরোধ করা হয়েছে বলে জানান তথ্যমন্ত্রী।

ঢাকা জার্নাল, আগষ্ট ১৯, ২০১৬।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল