July 25, 2016, 6:11 am | ২৫শে জুলাই, ২০১৬ ইং,সোমবার, সকাল ৬:১১

নীলক্ষেতে বিক্রি হচ্ছে প্রভার নতুন ভিডিও সিডি!

prova (1)ঢাকা জার্নাল: ‘মডেল কন্যা প্রভার নতুন ভিডিও সিডি’, ‘প্রতি ডিস্ক ৫০০ টকা’ এভাবেই নীলক্ষেত, বলাকা সিনেমা হলের সামনে দাড়িয়ে থাকা কয়েকজন চলমান পথচারী দৃষ্টি আকর্ষনের চেষ্টা করছে।

দুই হকারের এমন ডাকা-ডাকির সাড়া দিয়ে ঢাকা জার্নালের প্রতিবেদক এগিয়ে যান তার কাছে। বিষয়টি কি জানতে চাইলে তাদের একজন বলেন, “নিয়ে যান ভাই জান মডেল প্রভার নতুন ভিডিও ডিস্ক। মাস্টার পিচই দিবো আপনাকে। একেবারে মাস্টার ভিডিও। তবে এক দাম ৫০০ টাকা। দামাদামি করবেন না। স্টক সীমিত।”

যা হোক ঢাকা জার্নালের এই প্রতিবেদক কোন প্রকার মুলামুলি না করেই কিনে নিলেন একটি ডিস্ক। কাভারের উপর প্রভার কিছু ছবি (শালীন)।

এরপর মহা উত্তেজনা নিয়ে এই প্রতিবেদক তার বাসায় গিয়ে কম্পিউটারে চালালেন এই ডিস্কটি।  সিডিটি চালানো সঙ্গে সঙ্গে দেখা গেলো মডেল ও নাট্য শিল্পী প্রভার নতুন কিছু নাটক রয়েছে তাতে। ডিস্কটির প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত তিনটি নাটক রয়েছে।

এরপর ঐ প্রতিবেদক আবার ছুটে গেলেন নীলক্ষেত। তবে এবার আর তাদের দেখা নেই। এবার দেখা গেলো ভিন্ন কয়েকজনকে। অবশেষে তাদের একজনকে ধরে জিজ্ঞেস করলেন গতকাল এখানে কে কে ছিলেন। প্রথম বলতে নাই চাইলে পরে চা সিগারেট, খাইয়ে একটা বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক তৈরী করলেন এই প্রতিবেদক। তারপর বেরিয়ে আসলো আসল ঘটনা।

তারা বলছেন, সম্প্রতি সরকারের কঠোর অবস্থানের জন্য বাংলাদেশের বা বিদেশের পর্ণ ভিডিও প্রস্তুত, বাজারজাত এবং বিক্রি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। পুলিশ বেশ কয়েকজনকেও আটক করেছে এখান থেকে। ফলে তাদের ব্যবসা বন্দা। তাই নতুন কৌশল নিয়ে এগিয়েছেন তারা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এই সিডি বিক্রেতা বলেন, “আমরা কিন্তু মিথ্যা বলছি না। বলছি প্রভার নতুন ভিডিও। আর আপনারাও কেনার সময় জিজ্ঞেস করছেন না, কোন ধরণের ভিডিও। দাড়িয়ে থেকে এভাবে ডাকাডাকি নতুন বিজনেস প্ল্যান। মার্কেটিংয়ের নতুন একটি ধারা।”

তিনি বলেন, “টিভিতে দেখবে, জুস খেলে মানুষ সৎ হয়ে যায়! সীম ব্যবহার করলে দেশপ্রেমিক হয়ে যায়! আরো কতো কি। তাহলে আমাদের এমন প্রচারনায় দোষ কোথায়। শুধু মাইর খাওয়া থেকে বাঁচতে একদিন যে থাকি অন্য দিন থাকি আরেকজন।”

তবে এভাবে ব্যবসা ভালোই হয়েছে বলে জানিয়েছেন এই বিক্রেতা। তিনি বলেন, “যখন আমরা শুরু করেছি, প্রথম দুই ঘন্টায় বিক্রি হয়েছে প্রায় ১০ হাজার কপি সিডি। এরপর আস্তে আস্তে বিক্রির পরিমাণ কম এবং ক্রেতা আপনার মতো আমাদের খুঁজতে শুরু করেছে।”

লেখক: _____পাঞ্জেরী

(লেখাটি পড়ার জন্য পাঠকই দায়ী)

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল

সংবাদ শিরোনাম