June 24, 2017, 1:02 pm | ২৪শে জুন, ২০১৭ ইং,শনিবার, দুপুর ১:০২

আলোচনা ফলপ্রসূ, শিগগিরই খুলবে ফেসবুক

home_minister_937359894ঢাকা জার্নাল: ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, শিগগিরই ফেসবুক খুলে দেওয়া হবে।  রোববার (০৬ ডিসেম্বর) সকালে ফেসবুকের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সাড়ে ১০টায় শুরু হওয়া বৈঠকটি চলে প্রায় দুই ঘণ্টা।

ফেসবুকের এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের দুই কর্মকর্তা দিপালী লিবার হেন (দক্ষিণ এশিয়ার পলিসি ম্যানেজার) ও বিক্রম লাংয়ের (রাজনৈতিক ও আইন উপদেষ্টা) সঙ্গে ওই বৈঠকে অংশ নেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

এছাড়া বৈঠকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মো. মোজাম্মেল হক খান, পুলিশের মহাপরিদর্শক একএম শহিদুল হকসহ গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

ফেসবুক কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের আলোচনার বিষয় ছিল ফেসবুক। বাংলাদেশের নিরাপত্তার প্রশ্নে সাময়িকভাবে ফেসবুক বন্ধ রেখেছি। যারা ফেসবুক ব্যবহার করেন, তারা কথা বলছেন- কবে খুলবেন। তা নিয়েই এ আলোচনা।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের সিকিউরিটির (নিরাপত্তার) ক্ষেত্রে কি প্রয়োজন তা আমরা জানাতে পেরেছি। ফেসবুক কর্মকর্তারা আমাদের কথা শুনেছেন। তারা কতোটুকু সহযোগিতা করতে পারবেন, তাদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে। আমরা পর্যালোচনা করে একটি সিদ্ধান্ত শিগগিরই আপনাদের (গণমাধ্যম) কাছে উপস্থাপন করবো।

কবে নাগাদ ফেসবুক খুলে দেওয়া হবে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, শুধু এটুকু বলবো- ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। শিগগিরই সিদ্ধান্ত নেবো।

বিকল্প পথে ফেসবুক ব্যবহার নিয়ে নিরাপত্তার প্রশ্নে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের যুব সমাজ অনেক ট্যালেন্ট। এ যুব সমাজের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর অনেক আশা-ভরসা। যারা বিকল্প পথে ফেসবুক খুলছেন সেটি ভিন্ন বিষয়। তবে যে সিদ্ধান্ত হয়েছে- অফিসিয়ালভাবে শিগগিরই খোলার সিদ্ধান্ত নিচ্ছি।

ফেসবুকের কাছে আমাদের কি চাওয়ার ছিল, জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ফেসবুক অনেকে অপব্যবহার করছেন, অপপ্রচার চালাচ্ছেন। আমাদের জাতীয় নিরাপত্তার বিষয় রয়েছে। সে সব বিষয় নিয়ে কথা হয়েছে।

তারা (ফেসবুক কর্তৃপক্ষ) আমাদের চাওয়া মেটাতে পারবেন কি-না জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সবগুলো বিষয় নিয়ে কথা হয়েছে। আমরা আমাদের সমস্যার কথা বলেছি। তারা সহযোহিতা করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের চিঠিতে সাড়া দিয়ে ফেসবুক কর্মকর্তারা এ বৈঠকে অংশ নেন।

নারী ও শিশুর প্রতি অবমাননাকর বিষয়সহ সাইবার ক্রাইম রোধ এবং আপত্তিকর কনটেন্ট নিয়ন্ত্রণে ৩০ নভেম্বর ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে ই-মেইলে চিঠি পাঠান তারানা হালিম। তার একদিন পর চিঠির জবাব দেয় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ, যাতে আলোচনায় বসার সময় নির্ধারণ করা হয়।

ঢাকা জার্নাল, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৫।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল