সড়কে প্রাণ গেল অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ ছয় জনের

জুন ২৫, ২০২৪

ঢাকা জার্নাল ডেস্ক:

বিভিন্ন স্থানে সোমবার সড়ক দুর্ঘটনায় অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ ছয় জন নিহত হয়েছেন।

ভাণ্ডারিয়া-মঠবাড়িয়া সড়কের ইকড়ি ইউনিয়নের ঝাউতলা নামক স্থানে সকাল ৭টার দিকে পিকআপের চাপায় পথচারী অন্তঃসত্ত্বা ঝুমাইয়া আক্তার (২২) এবং ৯ বছরের শিশু হাওয়া নিহত হয়। এ সময় আরো তিন জন গুরুতর আহত হয়। উপজেলার দক্ষিণ ইকড়ি গ্রামের হোসেন সাহেবের স্ত্রী ঝুমাইয়া আক্তার ও ঝালকাঠি জেলার কাঠালিয়া উপজেলার মরিচবুনিয়া গ্রামের মেহেদী হাসানের মেয়ে হাওয়াসহ ছয় জন চট্টগ্রাম কর্মস্থলে যাওয়ার জন্য বাসের অপেক্ষায় ইকড়ি গ্রামের হাওলাদার বাড়ির সামনে সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে ছিল। মঠবাড়িয়া থেকে আসা দ্রুতগতির পিকআপ তাদেরকে চাপা দেয়। স্থানীয়রা ভাণ্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিত্সক ঝুমাইয়া আক্তার ও হাওয়াকে মৃত ঘোষণা করে। ভাণ্ডারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবির মোহাম্মদ হোসেন বলেন, মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নিয়ামতপুরে মোটরসাইকেল ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নয়ন (২৮) নামে এক সেনাসদস্যের মৃত্যু হয়েছে। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার ধর্মপুরমোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত নয়ন নিয়ামতপুর উপজেলার ভাবিচা ইউনিয়নের গোরাই গ্রামের লাল চান মিয়ার ছেলে। নয়ন ঈদের ছুটিতে বাড়ি আসছিলেন। সকালে ছাতড়াবাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে গাবতলী থেকে ছেড়ে আসা মাইক্রোবাসটি গাবতলী-ছাতড়া আঞ্চলিক সড়কের ধর্মপুরমোড় এলাকায় পৌঁছলে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই নয়নের মৃত্যু হয়।নিয়ামতপুর থানার ওসি মাইদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

কামারখন্দে প্রাইভেট কার-ট্রাক সংঘর্ষে পিংকি খাতুন (৩৫) নামের এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। প্রাইভেট কারের চালকসহ চার জন আহত হয়েছে। সকালে ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের কামারখন্দ উপজেলার ঝাঐল ওভার ব্রিজ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত পিংকি খাতুন পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ এলাকার অ্যাডভোকেট আব্দুল ওয়াহিদের স্ত্রী। পঞ্চগড় থেকে প্রাইভেট কার নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দিয়েছিলেন অ্যাডভোকেট আব্দুল ওয়াহিদ। উপজেলার ঝাঐল ওভারব্রিজ এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। বঙ্গবন্ধু পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাদের জিলানী দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শান্তিগঞ্জে রাস্তা পারাপারের সময় ট্রাকের ধাক্কায় মরিয়ম আক্তার (৭) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। নিহত মরিয়ম শান্তিগঞ্জ উপজেলার সুলতানপুর গ্রামের ইমদাদুল হকের মেয়ে। বেলা ১১টায় উপজেলার আব্দুল মজিদ কলেজের সামনে সিলেট-সুনামগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে শান্তিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মোক্তাদির হোসেন বলেন, আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

মহাদেবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় মো. জিহাদ হোসেন (১৬) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে দুপুর ১২টায় উপজেলা সদরের বসনা ব্রিজ এলাকায়। নিহত জিহাদ হোসেন উপজেলার এনায়েতপুর ইউনিয়নের রোদইল গ্রামের মো. আব্দুস সামাদের ছেলে এবং সাপাহার উপজেলার তিলনা মাদ্রাসার দাখিল শ্রেণির ছাত্র। মোটরসাইকেলযোগে জিহাদ হোসেন বাড়ি থেকে ফুপুর বাড়ি ধর্মপুরে বেড়াতে যাচ্ছিল। বসনা ব্রিজ এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগামী ট্রাক তাকে ধাক্কা দিলে তিনি ছিটকে পড়েন। স্থানীয়রা মহাদেবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিত্সক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মহাদেবপুর থনার অফিসার ইনচার্জ মো. রুহুল আমিন বলেন, ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।