ভবিষ্যতে বাংলাদেশ চাল রপ্তানি করবে: খাদ্যমন্ত্রী

জুলাই ৭, ২০২৪

ঢাকা জার্নাল রিপোর্ট:

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, আমদানি নয় ভবিষ্যতে বাংলাদেশ চাল রপ্তানি করবে। গত দুই বছর সরকার চাল আমদানি করেনি,এবারও চাল আমদানির প্রয়োজন হবে না।

মন্ত্রী রোববার নওগাঁর সাপাহার উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে রাজশাহী বিভাগের কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ‘কৃষি প্রযুক্তি মেলা-২০২৪’ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন,কৃষি প্রণোদনা সরকারের পরিকল্পিত ও সময়োপযোগী পদক্ষেপ। কৃষি খাতে প্রণোদনা ও র্ভতুকি দিয়ে কৃষকের পাশে আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কৃষিকে প্রযুক্তি বান্ধব করতে তিনি নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। যে প্রণোদনা বিতরণ করা হচ্ছে সেটা সঠিক ব্যবহার হলে জমিতে বেশি চাষাবাদ হবে ও উৎপাদন ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে।

মন্ত্রী আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুচিন্তিত চিন্তাধারায় অল্প জমিতে বেশি ফসল ফলাতে কৃষি যন্ত্রের ব্যবহার বেড়েছে। অধিক জনসংখ্যার জন্য খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রযুক্তির ব্যবহার কৃষকের জন্য আশীর্বাদ স্বরুপ। এছাড়া, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক পতিত জমিতেও এখন চাষাবাদ বেড়েছে।

তিনি বলেন, পণ্যের দাম বেড়ে যাচ্ছে বলা হচ্ছে। কিন্তু পণ্যের দাম বাড়লে ভোক্তার সমস্যা আর দাম কমলে কৃষকের সমস্যা। উৎপাদন খরচ না উঠলে কৃষক উৎপাদনে নিরুৎসাহিত হবে। এছাড়া,সমাজের নিম্নআয়ের মানুষের জন্য সরকারের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচি,ওএমএস ও টিসিবির  র্ভতুকি মূল্যে চাল আটা বিক্রি করা হচ্ছে।

সাপাহার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: মাসুদ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো:শাহজাহান হোসেন,উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নঈমুদ্দিন,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাহিমা খাতুন,উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো: মাসুদ রেজা সারোয়ার,উপজেলা কৃষি অফিসার শাপলা খাতুন এবং শিরন্টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে মন্ত্রী সাপাহার উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে তিনি দিনব্যাপী কৃষি প্রযুক্তি মেলা উদ্বোধন ও স্টল পরিদর্শন করেন।