July 27, 2017, 8:54 am | ২৭শে জুলাই, ২০১৭ ইং,বৃহস্পতিবার, সকাল ৮:৫৪

সৌদীতে ২০ দিন পর বৈধতা হারাবে বাংলাদেশিরা

labour-sm20130613034435ঢাকা জার্নাল: অবৈধ প্রবাসীদের প্রতি সৌদি বাদশাহ’র বিশেষ ক্ষমার মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ৩ জুলাই । সৌদি সরকারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী গত দেড় মাসে ৫ লাখ শ্রমিক বৈধ হয়েছে। এখনো অবৈধ রয়ে গেছে ১৫ লাখ শ্রমিক। এ ১৫ লাখ অবৈধ শ্রমিকের বৈধ হওয়ার সময় বাকি আছে আর মাত্র ২০ দিন।
সৌদি আরবে অবৈধভাবে বসবাসরত বিশ লাখ প্রবাসীকে বৈধ করার জন্য তিন মাস যথেষ্ট নয় বলে দাবি জানিয়েছেন সৌদি আরবের শীর্ষ ব্যবসায়ী ও অর্থনীতিবিদরা।

সরকারের নিকট তারা এসময় বাড়ানোর দাবি জানান।

বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ও সাবেক সৌদি সুরা কাউন্সিলের সদস্য ইহসান বুহুলাইগা রিপোর্টের তথ্যানুযায়ী বলেন, এপর্যন্ত ৫লাখ অবৈধ শ্রমিক বৈধ হয়েছে। অবশিষ্ট আরো ১৫ লাখ শ্রমিককে বৈধ করার জন্য এ বিশেষ ক্ষমার সময় বাড়ানো দরকার।

তিনি সৌদির শীর্ষ স্থানীয় একটি সংবাদ মাধ্যমকে জানান, বিদেশি দূতাবাস, সৌদি চেম্বার অব কমার্স, শ্রম অফিস এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় শ্রমিকদের বৈধ করতে চেষ্টা চালাচ্ছে। তবে এটি খুব সহজ কাজ নয়।

দূতাবাস, চেম্বার অব কমার্স, পাসপোর্ট বিভাগ এবং শ্রম অফিসের সামনে দীর্ঘ লাইন রয়েছে। এদীর্ঘ লাইনই বিশেষ সময় বর্ধিত করার ইঙ্গিত বহন করে বলেও জানান এই অর্থনীতিবিদ।

ইরাম গ্রুপে দশ হাজারেরও বেশি শ্রমিক কর্মরত। এ গ্রুপের সিএমডি সিদ্দিক আহমেদ বলেন, গত দুই মাস অবৈধ শ্রমিকদের বৈধ করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান আন্তরিকতার সাথে কাজ করলেও বিপুল সংখ্যক শ্রমিকের জন্য এই সময়টি যথেষ্ট নয়। এসময় অন্তত আরো দুই মাস বাড়ানোর দাবি জানান তিনি।

তিনি আরো বলেন, আমি বিশ্বাস করি অক্টোবর পর্যন্ত সময় পেলে সকল কোম্পানি তাদের শ্রমিকদের বৈধ করতে পারবে।

এদিকে এই বিশেষ ক্ষমার মেয়াদ বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন দেশের কূটনৈতিকরা ইতোমধ্যে সৌদি সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়েছে।

সৌদি শ্রমমন্ত্রী আদেল ফাকিহ জেনেভা সম্মেলনে বলেন, নিতাকাত (সৌদিকরণ) প্রকল্পের মাধ্যমে এ পর্যন্ত ৬লাখ ১৫হাজার সৌদি নাগরিকের কর্মসংস্থানের সুযোগ হয়েছে যার মধ্যে ১লাখ ৮০হাজার নারী। আরো ১৭হাজার নাগরিকের চাকরী প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

৩ জুলাইয়ের পর লাল ক্যাটাগরিভুক্ত কোম্পানিগুলোর শ্রমিকদের পেশা পরিবর্তন বন্ধ রাখতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন বলেও তিনি জানান।

এদিকে ১লাখ ২০হাজার বাংলাদেশি দূতাবাস থেকে পাসপোর্ট সংগ্রহ করলেও এরমধ্যে প্রকৃতপক্ষে কতজন বৈধ হয়েছেন তার পরিসংখ্যান এখনো দূতাবাসে এসে পৌছায়নি বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দুতাবাসের একটি দায়িত্বশীল সূত্র বাংলানিউজকে জানিয়েছেন।

অতিরিক্ত সময় না পেলে পাসপোর্ট সংগ্রহকারীদের একটি বিশাল অংশ অবৈধ থেকে যাবে বলেও বাংলানিউজকে জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৮ ঘণ্টা, জুন ১৩, ২০১৩

ঢাকা জার্নাল, জুন ১৬, ২০১৩।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল