July 23, 2017, 8:54 pm | ২৩শে জুলাই, ২০১৭ ইং,রবিবার, রাত ৮:৫৪

সংগ্রামের ছাপাখানায় তল্লাশি

imavges

ঢাকা জার্নালঃ জামায়াতে ইসলামীর মুখপত্র দৈনিক সংগ্রামের ছাপাখানায় অভিযান চালিয়ে ‘আমার দেশের’ ছয়হাজার কপি পত্রিকা জব্দ করেছে পুলিশ।
শনিবার রাত পৌনে ১১টার দিকে মগবাজারে আল ফালাহ প্রিন্টিং প্রেসে অভিযান চালানো হয়।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তারের পর তেজগাঁওয়ে পত্রিকাটির ছাপাখানা সিলগালা করে দেয়া হয়েছিল।

পুলিশের রমনা জোনের সহকারী কমিশনার শিবলী নোমান  বলেন, “ওই প্রেসে অবৈধভাবে দৈনিক আমার দেশ ছাপানো হচ্ছে এমন খবর পেয়ে আমরা অভিযান চালিয়েছি। সেখান থেকে আমার দেশের বেশ কিছু কপি উদ্ধার করা হয়েছে।”

যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচারকের কথিত স্কাইপ কথোপকথন প্রকাশ এবং রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে  বৃহস্পতিবার দৈনিক আমার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই দিনই তাকে তিনটি মামলায় ১৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত।

সম্পাদককে গ্রেপ্তার এবং এরপর ছাপাখানা সিলগালা করে দেয়া হলেও শুক্র ও শনিবার সীমিত পরিসরে পত্রিকাটি বের হয়েছে।

প্রেসেস অ্যান্ড পাবলিকেশন অ্যাক্ট অনুযায়ী একটি সংবাদপত্র কোন ডিক্লারেশন পেলে তার জন্য ছাপাখানারও ডিক্লারেশন দেয়া হয়। ঘোষিত ছাপাখানার বাইরে অন্য কোথাও পত্রিকা ছাপাতে চাইলে জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের অনুমতি নিতে হয়।

তবে দৈনিক আমার দেশ অন্য ছাপাখানা থেকে ছাপার ব্যাপারে কোন অনুমতি নেয়নি বলে গণমাধ্যমে খবর এসেছে।

অবশ্য দৈনিক সংগ্রামের উৎপাদন ব্যবস্থাপক খায়রুল ইসলাম জানিয়েছেন, আমার দেশ কর্তৃপক্ষ ঢাকা জেলা ম্যাজিস্টেটের কাছ থেকে তাদের প্রেসে ছাপানোর অনুমোদন নিয়েছে। সে জন্যই তারা তাদের প্রেসে পত্রিকাটি ছাপাচ্ছিলেন।

তিনি বলেন, “রাত পৌন ১১টার দিকে একজন মহিলা ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে এখানে পুলিশ এসে আমাদের জানায়- আমার দেশ এখান থেকে ছাপানোর বিষয়টি বৈধ নয়। তবে ততক্ষণে ৬ হাজার ১ কপি ছাপা হয়ে গিয়েছিল। পরে তারা পত্রিকার সেসব কপি জব্দ করে।”

ম্যাজিস্ট্রেটের অনুমোদনপত্র দেখাতে চাইলেও তারা দেখেননি বলে দাবি করেন খায়রুল।

সংগ্রামের এই উৎপাদন ব্যবস্থাপক জানান, পুলিশ পত্রিকা জব্দ ও ছাপার প্লেট খুলে নেয়ার পাশাপাশি আমার দেশের ছাপা সংশ্লিষ্ট ১৯জন কর্মীকে তাদের সঙ্গে নিয়ে গেছে।

রমনা থানার ডিউটি অফিসার অলিভ মাহমুদ ওই ১৯ জনকে থানায় আনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, “তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল