June 29, 2017, 4:28 am | ২৮শে জুন, ২০১৭ ইং,বৃহস্পতিবার, রাত ৪:২৮

মিল হলো অনন্ত-বর্ষায়

2012-12-30-07-38-17-50dfef69c14c2-ananta-borshaঢাকা জার্নাল: কিছু দিন আগেও পরস্পরের বিরুদ্ধে আপত্তিকর অভিযোগ তুললেও শেষ পর্যন্ত বিচ্ছিন্ন হলেন না চিত্রনায়ক অনন্ত জলির ও তার স্ত্রী চিত্রনায়িকা বর্ষা। দু’জনের মধ্যকার বিরোধ পুরোপুরি মিটে গেছে এবং তারা একেবারে স্বাভাবিক সম্পর্কে ফিরে গেছেন।

শনিবার তাদের অভিনীত ছবির গানের একটি অ্যালবামের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে এ বিষয়টি পরিষ্কার করলেন তারা।

সন্ধ্যায় অনন্ত ও বর্ষা অভিনীত নিঃস্বার্থ ভালোবাসা ছবির গানের অ্যালবামের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়। সন্ধ্যা ৭টায় অনুষ্ঠান শুরুর কথা থাকলেও রাত ৮টায় অনুষ্ঠানস্থলে আসেন অনন্ত ও বর্ষা এবং খুব স্বাভাবিকভাবেই মঞ্চে উঠে পাশাপাশি বসেন তারা।

রাজধানীর হোটেল একাত্তরে আয়োজিত মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে বর্ষা বলেন, ‘আমি কয়েকদিন ধরে অসুস্থ্যবোধ করছিলাম। দেশের যা অবস্থা তাতে ভালো থাকা কঠিন। আমাদের মুনসুন ফিল্ম থেকে নিঃস্বার্থ ভালোবাসা ছবির গানের অ্যালবাম বাজারে আসবে। আমি প্রচুর গান শুনি। তবে এ ছবির গানগুলো বেশি শুনি। খুব প্রিয় এ গানগুলো। আর অনন্ত সাহেব ছবিটি কষ্ট করে নির্মাণ করেছেন।’

অনুষ্ঠানে আগত সবাই আশা করেছিলেন বর্ষা তাদের সম্পর্কের ব্যাপারটা নিয়ে কথা বলবেন। কিন্তু তিনি বক্তব্যের মাঝে এমনভাবে কথা বলেন যেনো এর আগে কিছুই ঘটেনি।

সব শেষে বক্তব্য দেন অনন্ত। তিনি নিঃস্বার্থ ভালোবাসা ছবি নির্মাণের নেপথ্যের কাহিনী বলেন। এ ছবি নির্মাণ করতে গিয়ে বিভিন্ন দুর্ঘটনার কথা উল্লেখ করেন। কিন্তু বর্ষার সঙ্গে তার সম্পর্ক আগের মতো আছে কি না এসব কিছু না বলে স্টেজ থেকে নেমে পড়েন।
অনুষ্ঠান শেষে অনন্ত বলেন, ‘ভাই এ ব্যাপারটা নিয়ে এত হইচই হয়েছে যে এটা নিয়ে আর কথা বলতে ভালো লাগছে না। তবে আমাদের মধ্যে আর কোনো ঝামেলা নেই। সব ঝামেলা মিটে গেছে। আগামী ২০ এপ্রিল থেকে মোস্ট ওয়েলকাম টু ছবির শ্যুটিং শুরু করব।’

অনন্তের সঙ্গে আপনার সম্পর্ক আছে কি না জিজ্ঞেস করলে বর্ষা বলেন, ‘আমি কখনো তো কাউকে বলিনি যে, অনন্তের সাথে আমার সম্পর্ক নেই। অনন্তের একটু রাগ বেশি। সে অনেক কিছু হয়তো বলেছে রাগের মাথায়। সেটা নিয়ে তো আমি রাগ করতে পারি না।’

এদিকে নিঃস্বার্থ ভালোবাসা ছবিটি লাইমলাইটে নিয়ে আসার জন্যই বর্ষা আর অনন্ত সম্পর্ক নিয়ে টানাপোড়েনের কাহিনী ফেঁদেছেন বলে অনেকে মন্তব্য করছেন। কারণ, নিঃস্বার্থ ভালোবাসা ছবির কাহিনীর সঙ্গে তাদের মধ্যে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া এ কাহিনীর মিল পাওয়া যায়।

উল্লেখ্য, গত ২৩ মার্চ অনন্ত-বর্ষার মধ্যে মনোমালিন্য হলে বিষয়টি থানা পুলিশ পর্যন্ত গড়ায়। বর্ষা সবার অজান্তে ভারত চলে গেলে অনন্ত সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তাদের ডিভোর্সের কথা জানান। পরে এ বিষয়ে তিনি আর কোনো কথা বলেননি।

সাংবাদিকরা আশা করেছিলেন ভারত থেকে ফিরে বর্ষা এ বিষয়ে কিছু বলবেন। কিন্তু তিনিও দেশে ফিরে নিজেকে আড়াল করে রাখেন। অবশেষে শনিবার দু’জন সাংবাদিকদের সামনে একসাথে এসে তাদের সম্পর্ক জোড়া লাগানোর বিষয়টি পরিষ্কার করলেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল