June 27, 2017, 9:34 am | ২৭শে জুন, ২০১৭ ইং,মঙ্গলবার, সকাল ৯:৩৪

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসঃ আটক ১১

EXAM

ফাঁস হয়েছে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন এমনই শোনা যায় গতকাল।  দেশের ৬১টি জেলায় (পার্বত্য তিন জেলা ছাড়া) শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে ৮০ নম্বরের নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্নে এই পরীক্ষা শুরু হয়। ১১ লাখ ৯০ হাজার প্রার্থীর এই পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে। এই পরীক্ষার মাধ্যমে ১৪ হাজার ৮৫৮ জনকে  সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ দেয়া হবে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শ্যামল কান্তি ঘোষ বলেন, “বিভিন্ন জেলা থেকে আমরাও প্রশ্ন ফাঁসের খবর পেয়েছি। কয়েকজনকে আটকও করা হয়েছে। পরীক্ষার পর উদ্ধার করা প্রশ্নের সঙ্গে মিলিয়ে দেখে জেলা প্রশাসকরা জানিয়েছেন যেসব প্রশ্ন উদ্ধার করা হয়েছে তার সবই ভুয়া। টাকার জন্য কিছু লোক এই প্রতারণা করেছে।”

তবে র‌্যাবের দাবি তারা রাজশাহী থেকে এই চক্রের মুলহোতা মোস্তাফিজুর রহমান নামের এক ব্যক্তিসহ আটজনকে আটক করেছে। তারা তখন প্রশ্ন ফোটোকোপি করছিলো।

নিয়োগ পরীক্ষা সামনে রেখে বৃহস্পতিবার সন্ধ্য থেকেই বিভিন্ন জেলায় ফটোকপির দোকানে প্রশ্নপত্র ‘বিক্রির’ খবর আসতে থাকে।

কিশোরগঞ্জের গৌরাঙ্গবাজার এলাকার একটি ফটোকপির দোকান থেকে কথিত প্রশ্নপত্রসহ পাঁচজনক গ্রেপ্তার করা হয় বলে সদর মডেল থানার ওসি হাম্মাদ হোসেন জানান।

নেত্রকোনায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক নিয়োগের প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে সন্দেহভাজন সাত জনকে  আটক  করে পুলিশ।

নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি মফিজুল ইসলাম জানান, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী হাকিম রাশেদুল হক প্রধানের নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার রাতে শহরের বিভিন্ন স্থানে ফটোকপির দোকানে অভিযান চালিয়ে প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে সাতজনকে আটক করে পুলিশ।

সেখানেও কিছু নমুনা জব্দ করা হয়েছে বলে জানান ওসি।

কুষ্টিয়া, মংমনসিংহ, টাঙ্গাইল, নরসিংদীসহ দেশের অন্যান্য জেলা থেকেও প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ পাওয়া গেছে

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল