July 23, 2017, 8:53 pm | ২৩শে জুলাই, ২০১৭ ইং,রবিবার, রাত ৮:৫৩

ব্লগার আটকের গুজবে সতর্কতার আহ্বান

0,,16689572_401,00ঢাকা জার্নাল: মঙ্গলবার দুপুরে হঠাৎ করে গুজব ছড়িয়ে পড়ে ব্লগার আরিফ জেবতিক আটক! একটি অনলাইন পত্রিকার বরাতে ফেসবুকে মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়ে একথা৷ অল্প সময়ের মধ্যে অবশ্য জানা যায়, এটা গুজব!

ব্লগার গ্রেপ্তারের বিষয়টি এখন এক আতঙ্ক হিসেবে দেখা দিয়েছে৷ এই আতঙ্কের কারণটা যৌক্তিক৷ গত সপ্তাহে গ্রেপ্তার হয়েছেন চার ব্লগার৷ ‘ইসলাম ধর্ম নিয়ে উসকানিমূলক মন্তব্য ও কটূক্তি’র অভিযোগে গ্রেপ্তারের পর তাদের নেওয়া হয়েছে রিমান্ডে৷ বাংলাদেশের বাস্তবতায় অধিকাংশ মানুষ বিশ্বাস করেন, রিমান্ডে নিয়ে কথা বের করার নামে অকথ্য নির্যাতন চালানো হয়৷ তাই ‘রিমান্ড’ শব্দটি যে কারো মনে বাড়তি আতঙ্ক তৈরিতে যথেষ্ট৷

গত সপ্তাহে ব্লগারদের গ্রেপ্তারের খবর আগেই জনমনে বিশেষ আতঙ্ক তৈরি করে রেখেছিল৷ ফলে শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে সম্পৃক্ত ব্লগার আরিফ জেবতিককে আটকের গুজব দ্রুত ছড়ায়৷ ব্লগার সুশান্ত দাস গুপ্ত থেকে শুরু করে নাট্য পরিচালক মোস্তফা সরোয়ার ফারুকী, সবাই দ্রুত প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন৷

আরিফ জেবতিক দ্রুত উদ্যোগী হয়ে এই গুজবকে উড়িয়ে দিয়েছেন৷ ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, ‘আমি ঠিক আছি, গুজবে কান দেবেন না৷’ আটকের গুজবের পর ঢাকায় গণজাগরণ মঞ্চ আয়োজিত লাঠি মিছিলেও অংশ নেন তিনি৷

তবে এই আটক বা গ্রেপ্তার গুজবের একটি বিশেষ দিক তুলে ধরেছেন ব্লগার অমি রহমান পিয়াল৷ মঙ্গলবার একটি ফেসবুক স্ট্যাটাসের একাংশে তিনি লিখেছেন, ‘‘মঞ্চে ফেরার পর লিফলেটটা দেখেই আমার মনে হলো গুজবটা ইচ্ছাকৃত রটানো হয়েছে৷ আরিফ জেবতিক এখন ‘মার্ক’৷ তাকে অপহরণ করার চেষ্টা করা হবে৷ এতে এক ঢিলে কয়েক পাখী মারা যাবে৷”

বাংলা কমিউনিটি ব্লগ অ্যালায়েন্স (বিসিবিএ) অভিযোগ করেছে, ব্লগারদের আটক করা নিয়ে গুজব ছড়িয়ে অনলাইন অ্যাক্টিভিস্টদের মধ্যে অহেতুক উত্তেজনা ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে৷ এধরনের ‘মিথ্যা এবং বানোয়াট’ গুজবকে শক্ত হাতে প্রতিহত করতে ব্লগারদের প্রতি আহ্বানও জানিয়েছে বিসিবিএ৷

প্রসঙ্গত, আরিফ জেবতিক নিজেও কয়েকবার তাঁর উপরে হামলার আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন৷ তাঁর নামে সম্প্রতি ওয়ার্ডপ্রেসে ভুয়া ব্লগ খোলে কোনো একটি মহল৷ এরপর সেখানে ধর্ম বিরোধী বিভিন্ন লেখা পুরনো তারিখে প্রকাশ করে তারা৷

জেবতিক জানিয়েছেন, তাঁকে যেকোন সময় গ্রেপ্তারও করতে পারে পুলিশ৷

এদিকে, বুধবার দুই ফেসবুক ব্যবহারকারীকে আটক করেছে পুলিশ৷ জানা গেছে, ‘‘ফেসবুকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার অভিযোগে সিলেটের বিশ্বনাথে দুই জনকে আটক করেছে পুলিশ৷ অবশ্য পুলিশের কাছে তারা দাবি করেছেন, ফেসবুকের ওই পোস্টটি তাদের কারো নয়৷”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল