June 28, 2017, 11:38 am | ২৮শে জুন, ২০১৭ ইং,বুধবার, সকাল ১১:৩৮

যুদ্ধের পথে উত্তর কোরিয়া

320285_263303-north-korean-missilesঢাকা জার্নাল: আর আক্রমণের হুমকিতে থেমে নেই, উত্তর উপকূলে দু দুটো মিসাইল পাঠিয়ে যুদ্ধের পথে এগোনোরই ইঙ্গিত দিয়েছে উত্তর কোরিয়া৷ যু্দ্ধ শুরুর আশঙ্কা তাই বেড়েছে৷

এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ার কারণ যুক্তরাষ্ট্র আর দক্ষিণ কোরিয়ার সেই যৌথ সামরিক মহড়া৷ এই দুটি দেশের ওপর গত কিছুদিনে কয়েক দফাই হামলার হুমকি দিয়েছে উত্তর কোরিয়া৷ তবে যু্দ্ধ শুরু হয়নি৷ দীর্ঘদিন ধরে জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞার আওয়তাভুক্ত দেশ উত্তর কোরিয়া মনে করে যুক্তরাষ্ট্র-দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক মহড়া আসলে যুদ্ধের পাঁয়তারা৷

কিন্তু দক্ষিণ কোরিয়া এবং তাদের মিত্র দেশ যুক্তরাষ্ট্র তা অস্বীকার করে আসছে শুরু থেকেই৷ উত্তর কোরিয়ার আক্রমণের হুমকির জবাবে দাঁতভাঙা জবাব দেয়ার জবাবও বারবারই এসেছে যুক্তরাষ্ট্র আর দক্ষিণ কোরিয়ার পক্ষ থেকে৷

তিনদিন আগে উত্তর কোরিয়া কোরীয় উপদ্বীপে যুক্তরাষ্ট্রের আরো ব্যাপক সামরিক মহড়া দেখে জানিয়েছিল, দেশে এখন ‘যুদ্ধ পরিস্থিতি’ চলছে৷ শুক্রবার দেশটি উপকূলে মাঝারি পাল্লার দ্বিতীয় মিসাইলটি পাঠানোয় পরিস্থিতি আরো উত্তপ্ত৷

১৯৫৩ সালে দক্ষিণ ও উত্তর কোরিয়ার স্বাক্ষর করা শান্তি চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার পরই সম্প্রতি উত্তর কোরিয়া জানিয়ে দেয় এমন চুক্তিতে তারা আর থাকবে না৷ বৈরি দুই প্রতিবেশীর মধ্যে যুদ্ধ শুরুর আশঙ্কা তাই বেড়ে যায়৷

এবার উত্তর কোরিয়া ট্রেনে তুলে দুটি মিসাইল উপকূলে নিয়ে যাওয়ায় পরিস্থিতির আরো অবনতি হয়েছে৷ দক্ষিণ কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্র যথারীতি জানিয়েছে, হামলা হলে উপযুক্ত পাল্টা ব্যবস্থা খুব দ্রুতই তারা নেবে৷ উত্তর কোরিয়ার মুসুদান মিসাইল দুটির ক্ষমতা পরীক্ষিত নয়৷ তবে অনুমান করা হচ্ছে মিসাইল দুটি ৩ থেকে ৪ হাজার কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে পারবে৷ সেক্ষেত্রে দক্ষিণ কোরিয়া, জাপানের ওপর তো বটেই, এমনকি গুয়ামে অবস্থিত যুক্তরাষ্ট্রের সেনা ঘাঁটিতেও হামলা চালানো সম্ভব!

এসিবি/এসবি (এএফপি)

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল