March 25, 2017, 10:04 am | ২৫শে মার্চ, ২০১৭ ইং,শনিবার, সকাল ১০:০৪

২৫৭ এমপিকে সরকারি প্লট দেওয়া হয়েছে

gono-purtaঢাকা জার্নাল : গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন জানিয়েছেন, সংসদ সদস্যদের (এমপি) অনুকুলে পূর্বাঞ্চল নতুন প্রকল্পে ১৫৫টি এবং সম্প্রসারিত উত্তরা তৃতীয় পূর্ব প্রকল্পে ৮৩টি প্লট বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়াও ঝিলমিল আবাসিক প্রকল্পে ১৯জন এমপির অনুকুলে প্লট বরাদ্দের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে বুধবার (০৫ অক্টোবর) গাজী ম. ম. আমজাদ হোসেন মিলনের (সিরাজগঞ্জ-৩) লিখিত প্রশ্নের জবাবে এসব তথ্য জানান মন্ত্রী।

মন্ত্রী জানান, সরকারি প্লট না পাওয়া সংসদ সদস্যদের তালিকা রাজউকে সংরক্ষণ নেই।

মহিলা আসনের পিনু খানের তারকা চিহ্নিত প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্পে ভূমি উন্নয়ন ও অন্যান্য অবকাঠামো নির্মাণ পূর্বক পূর্ণাঙ্গ শহর হিসেবে আগামী ২০১৮ সালের জুনের মধ্যে বাস্তবায়নের পরিকল্পনা রয়েছে। বর্তমানে প্রকল্পের উন্নয়নলূক কাজ প্রায় ৬০ শতাংশ বাস্তবায়িত হয়েছে। প্রকল্পে ২৫ হাজার প্লটের মধ্যে প্রায় ১৩ হাজার প্লট বরাদ্দগ্রহীতাদের মধ্যে হস্তান্তর করা হয়েছে। ২০১৫ সালের জুলাই হতে পূর্বাঞ্চল নতুন শহর প্রকল্পে ইমারত নির্মাণের জন্য নকশা অনুমোদন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ডেসকো কর্তৃক বিদ্যুতায়ন কার্যক্রম চলমান আছে। পানি সরবরাহ ও পয়ঃনিষ্কাশনের কাজ চলছে।

এ ছাড়াও স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, মসজিদ, মাদ্রাসা, ঈদগাহ, মন্দির, গ্যাগোডা, খেলার মাঠ, লেক, স্টেডিয়াম, কনফারেন্স সেন্টার, গলফ ক্লাব, ফাইভ স্টার হোটেল, বাস টার্মিনাল, হাসপাতাল, কাঁচাবাজার, ইকোপার্ক, পুলিশ স্টেশন, ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ইত্যাদি সুবিধাসহ আনুষঙ্গিক সকল সুবিধাদির সংস্থান রেখে প্রকল্প প্রণয়ন করা হয়েছে।

বগুড়া-৬ আসনের এমপি নুরুল ইসলাম ওমরের তারকা চিহিৃত অপর এক প্রশ্নের জবাবে ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন জানান, ১০ম জাতীয় সংসদের যেসব সংসদ সদস্যের ঢাকায় বসবাসের জন্য নিজস্ব জায়গা নেই, তাদের বরাবরে বর্তমানে কোনো প্লট বরাদ্ধের সিদ্ধান্ত নেই। তবে পরবর্তীতে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীনে রাজউক কোনো প্রকল্প গ্রহণ করলে সেক্ষেত্রে সংসদ সদস্যদের মধ্যে প্লট বরাদ্ধের বিষয়টি বিধি অনুযায়ী বিবেচনা করা হবে।

ঢাকা-২০ আসনের এমপি এম এ মালেকের এক প্রশ্নের জবাবে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী জানান, ঢাকা শহরে মোট পরিত্যাক্ত বাড়ির সংখ্যা ৬ হাজার ৪৭১টি। রাষ্ট্রপতির আদেশ ১৬/৭২, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিদ্ধান্ত ও গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন সময়ে জারিকৃত অফিস আদেশ/অফিস স্মারক/পরিপত্র/সার্কুলার অনুসারে পরিত্যক্ত বাড়িঘর শহীদ পরিবার ও ‍যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের অনুকূলে বরাদ্ধ দেওয়া হয়ে থাকে।

ঢাকা জার্নাল, অক্টোবর ০৫, ২০১৬।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল