January 24, 2017, 4:57 am | ২৩শে জানুয়ারি, ২০১৭ ইং,মঙ্গলবার, রাত ৪:৫৭

সার্ক শীর্ষ সম্মেলন স্থগিত

saarcঢাকা জার্নাল: ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বিদ্যমান উত্তেজনাকর পরিস্থিতিতে স্থগিত হলো দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থার (সার্ক) শীর্ষ সম্মেলন।

৯-১০ নভেম্বর পাকিস্তানে এ শীর্ষ সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল। সম্মেলনে যোগ দেওয়ার বিষয়ে অপারগতার কথা সার্কের বর্তমান চেয়ার নেপালকে জানিয়ে দেওয়ার পর সম্মেলন অনিশ্চিত হয়ে পড়ে।

নেপালের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা সার্ক সম্মেলন স্থগিত করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিয়ম অনুযায়ী, যেকোনো একটি দেশ যোগ না দিলে সার্ক শীর্ষ সম্মেলন স্থগিত বা বাতিল হয়ে যায়। পরে এ বিষয়ে সব সদস্য একমত হয়ে সিদ্ধান্ত নিলে নতুন করে সম্মেলনের স্থান ও তারিখ ঘোষণা করা হয়।

মঙ্গলবার ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নেপালকে জানিয়ে দিয়েছে, বিদ্যমান পরিস্থিতিতে সম্মেলনে যোগ দিতে অপরাগ ভারত।

নেপালের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, সম্মেলনে ভারত যোগ না দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করার পর সম্মেলন স্থগিত হয়েছে।

ভারত শাসিত কাশ্মীরের উরি সেনাঘাঁটিতে পাকিস্তান থেকে অনুপ্রবেশকারী সন্ত্রাসীরা ১৮ সেপ্টেম্বর হামলা চালায়। রক্তক্ষয়ী এ হামলার পর তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখায় ভারত। হামলার জন্য সরাসরি পাকিস্তানকে দায়ী করে ভারত। পাকিস্তানকে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকে বিচ্ছিন্ন করার ঘোষণা দেয় ভারত।

উরি সেনাঘাঁটিতে হামলার পর আফগানিস্তান সার্কের সদস্য দেশগুলোর প্রতি পাকিস্তানে অনুষ্ঠেয় শীর্ষ সম্মেলন বয়কটের আহ্বান জানায়। সবশেষ ভারত, বাংলাদেশ, ভুটান ও আফগানিস্তান এ সম্মেলন বয়কট করল। ফলে নভেম্বর অনুষ্ঠেয় সার্ক শীর্ষ সম্মেলন আপাতত হচ্ছে না।

এদিকে, শ্রীলঙ্কাও সার্ক সম্মেলনে অংশ না নেওয়ার বিষয়ে শিগগিরই তাদের মত জানাতে পারে। তাই যদি হয়, দক্ষিণ এশিয়ায় একঘরে হয়ে পড়বে পাকিস্তান।

অন্যদিকে, ভারতের সম্মেলনে যোগ না দেওয়ার সিদ্ধান্তকে ‘দুভার্গজনক’ বলে উল্লেখ করেছে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ঢাকা জার্নাল, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৬।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল