March 24, 2017, 11:49 pm | ২৪শে মার্চ, ২০১৭ ইং,শুক্রবার, রাত ১১:৪৯

পেটে বাতাস ঢুকিয়ে শিশু হত্যায় কারখানা কর্মকর্তা গ্রেফতার

narayanganjঢাকা জার্নাল: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার যাত্রামুড়া এলাকায় একটি সুতার কারখানায় পেটে বাতাস ঢুকিয়ে সাগর বর্মণ (১০) নামে একটি শিশুকে হত্যার ঘটনায় কারখানার প্রশাসনিক কর্মকর্তা নাজমুল হুদাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার (২৪ জুলাই) রাতেই তাকে যাত্রামুড়‍া এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে শিশুটির বাবা রতন বর্মণ বাদী হয়ে চারজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

বাকি আসামিরা হলেন- উৎপাদন ম্যানেজার হারুন অর রশিদ, সিনিয়র উৎপাদন কর্মকর্তা আজাহার ইমাম সোহেল ও সহকারী উৎপাদন কর্মকর্তা রাশেদুল ইসলাম।

রূপগঞ্জ থানার সেকেন্ড অফিসার উপ পরিদর্শ (এসাাই) এনামুল হক চৌধুরী  এ তথ্য জানান।

রোববার (২৪ জুলাই) দুপুরে যাত্রামুড়া এলাকায় জবেদা টেক্সটাইল নামে একটি সুতার কারখানায় সাগর নামে ওই শিশুটির পেটে বাতাস ঢুকিয়ে দেয় ওই কারখানার চার কর্মকর্তা। ঘটনার পর গুরুতর অবস্থায় প্রথমে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নেওয়া হয় তাকে। পরে অবস্থার অবনতি ঘটলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতলের জরুরি বিভাগে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সাগর নেত্রকোনা জেলার খালিয়াজুড়ি উপজেলার রাজিবপুর গ্রামের রতন বর্মণের ছেলে। বর্তমানে সে রূপগঞ্জ দিঘী এলাকায় তার পরিবারের সঙ্গে থাকত।

এর আগে খুলনায় ১২ বছরের শিশু রাকিব হাওলাদারকে একই কায়দায় হত্যা করা হয়। গত বছরের ০৩ আগস্ট (২০১৫ সাল) খুলনার টুটুপাড়া কবরখানা মোড়ের একটি ওয়ার্কশপে মোটরসাইকেলে হাওয়া দেওয়ার কমপ্রেসার মেশিনের মাধ্যমে পেটে বাতাস ঢুকিয়ে হত্যা করা হয় রাকিবকে। এতে দুইজনের ফাঁসির রায় হয়।

ঢাকা জার্নাল, জুলাই ২৫, ২০১৬।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল