December 8, 2016, 12:23 am | ৮ই ডিসেম্বর, ২০১৬ ইং,বৃহস্পতিবার, রাত ১২:২৩

অজ্ঞাত জঙ্গির বাড়ি বগুড়ায়, বাবা-ভাই আটক

arrestedঢাকা জার্নাল : গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় হত্যাযজ্ঞে অংশ নেওয়া অজ্ঞাত জঙ্গির পরিচয় মিলেছে।

তার নাম শফিকুল ইসলাম উজ্জল। তিনি বগুড়ার ধুনট উপজেলার বানিয়াজান গ্রামের বদিউজ্জামানের ছেলে। ওই ঘটনায় নিহত পাঁচ জঙ্গির মধ্যে দুজনের বাড়ি বগুড়ায়। গণমাধ্যমে ছবি দেখে বাবা-মা ও প্রতিবেশীরা উজ্জলকে শনাক্ত করেন।

সোমবার সন্ধ্যায় উজ্জলের বাবা বদিউজ্জামান ও বড় ভাই আসাদুল ইসলামকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ধুনট থানার পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে।

জেলা পুলিশের মিডিয়া সেলের দায়িত্বে থাকা সহকারী পুলিশ সুপার গাজিউর রহমান অজ্ঞাত জঙ্গির পরিচয় শনাক্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, নিহত ওই অজ্ঞাত জঙ্গির ছবি দেখে বদিউজ্জামান তাকে তার সন্তান উজ্জল হিসেবে শনাক্ত করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বগুড়ার আজিজুল হক কলেজ থেকে মাস্টার্স প্রথম বর্ষের পরীক্ষা দিয়ে দুই বছর আগে তিনি ঢাকার আশুলিয়া থানার শাহজাহান মার্কেট এলাকার মাদারী মাদবর কেজি স্কুলে শিক্ষকতার চাকরি নেন। পাশাপাশি তিনি লেখাপড়াও চালিয়ে যাচ্ছিলেন। আশুলিয়া এলাকায় তার বড় ভাই গার্মেন্টস শ্রমিক আসাদুলের বাসাতেই থাকতেন উজ্জল। চার মাস আগে আসাদুল গার্মেন্টসের চাকরি ছেড়ে দিয়ে বাড়ি চলে এলে উজ্জল আরেকটি বাসা ভাড়া নিয়ে চাকরি করছিলেন। অনেক দিন আগে উজ্জল কালো পোশাক ও মাথায় পাগড়ি বেঁধে এলাকায় ঘুরে বেড়িয়েছেন এবং ইসলামের কথা বলেছেন।

বদিউজ্জামান বলেন, ‘৬ মাস আগে উজ্জল একবার বাড়িতে আসে। সবাইকে বলে, আমি বেশ কিছুদিনের জন্য চিল্লায় যাচ্ছি। তার পর সে আর বাড়ি আসেনি। ঢাকায় নিহত ৬ জঙ্গির মধ্যে একজন তার ছেলে উজ্জল।’

আসাদুল ইসলাম বলেন, ‘৬ মাস ধরে তার (উজ্জল) সঙ্গে আর যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। সে কখন সবার অজান্তে এ কাজে জড়িয়ে পড়েছে তা আমাদের পরিবারের অজানা।’

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) পঞ্চানন দাস বলেন, ঢাকায় যে পাঁচ সন্ত্রাসী আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে মারা গেছে, তাদের একজন শফিকুল ইসলাম উজ্জল।

গত শুক্রবার রাতে হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় জঙ্গিরা দেশি-বিদেশিসহ বেশ কয়েকজনকে জিম্মি করে ২০ জনকে হত্যা করে। পরে শনিবার কমান্ডো অভিযান চালায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। অভিযানের পর ১৩ জিম্মিকে উদ্ধার করে তারা। সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে পাঁচ জঙ্গি নিহত হয়। অভিযান শেষে ঘটনাস্থল থেকে ২০ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

ঢাকা জার্নাল, জুলাই ৫, ২০১৬।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল