March 25, 2017, 1:48 pm | ২৫শে মার্চ, ২০১৭ ইং,শনিবার, দুপুর ১:৪৮

গুলির পর আত্মঘাতী বোমার বিস্ফোরণ ইস্তাম্বুলে

Istambulঢাকা জার্নাল: ইস্তাম্বুলের আতাতুর্ক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিরাপত্তা বেষ্টনী পার হওয়ার সময় হামলাকারীরা প্রথমে এলোপাতাড়ি গুলি ছোড়ার পর আত্মঘাতী বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় বলে জানিয়েছে দেশটির ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ।

তুরস্ক জানায়, আতাতুর্ক বিমানবন্দরে হামলায় অংশ নেয় তিন হামলাকারী। হামলাকারীরা বিমানবন্দরের নিরাপত্তা বেষ্টনী পার হওয়ার সময় একে-৪৭ রাইফেল দিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়তে শুরু করে।  আকস্মিক এ হামলায় বিমানবন্দরে থাকা মানুষ আতঙ্কে ছোটাছুটি শুরু করে। এ সময় বিমানবন্দরের নিরাপত্তা কর্মীরা হামলাকারীদের উদ্দেশে পাল্টা গুলি চালালে এক হামলাকারী আহত হয়। পরে আহত ওই হামলাকারী আত্মঘাতী বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়।

এদিকে অপর দুই হামলাকারী এ সময় আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটায় কিনা তা নিশ্চিত করা না গেলেও পাল্টা হামলায় ওই তিন হামলাকারী নিহত হয় বলে জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২৮ জুন) রাতে সংঘটিত এ হামলার অন্তত ৪১ জন নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন ১৪৭ জন। আহতদের স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

নিহতদের মধ্যে ২৩ জনই তুরস্কের নাগরিক। এছাড়া অপর ১৩জনের মধ্যে পাঁচজন সৌদি আরবের, দুইজন ইরাকেরএবং চীন, জর্দান, তিউনেশিয়া, উজবেকিস্তান, ইউক্রেনসহ ইরানের একজন করে নাগরিক রয়েছেন।

হামলার পরপরই বিমানবন্দরটিতে সব ধরনের বিমান চলাচল বন্ধ রাখা হলেও স্থানীয় সময় মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ফের প্লেন চলাচল শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তবে ইরান থেকে ইস্তাম্বুলে চলাচলকারী সব ফ্লাইট বন্ধ রেখেছে তেহরান।

হামলার পরপরই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিন আলি ইলদিরিম। এ হামলাকে জঙ্গি হামলা বলে অভিহিত করেন তিনি। যদিও এ হামলার ঘটনায় এখন পর্যন্ত দায় স্বীকার করেনি কোনো জঙ্গি গোষ্ঠী। তবে ধারণা করা হচ্ছে আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) এ হামলার সঙ্গে জড়িত।

ঢাকা জার্নাল, জুন ২৯, ২০১৬

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল