January 20, 2017, 5:31 am | ১৯শে জানুয়ারি, ২০১৭ ইং,শুক্রবার, ভোর ৫:৩১

দীর্ঘদিনের একটি স্বপ্ন পূরণ

Hasina_Speak_021466919400ঢাকা জার্নাল  : মেট্রোরেল প্রকল্প ও বাস র‍্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আমাদের দীর্ঘদিনের একটি স্বপ্ন পূরণ হতে চলেছে।’

রোববার সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে মেট্রোরেল প্রকল্প ও গ্রেটার ঢাকা সাসটেইনেবল আরবান ট্রান্সপোর্ট প্রজেক্টের আওতায় গাজীপুর থেকে শাহজালাল বিমানবন্দর পর্যন্ত বাস র‌্যাপিড ট্রানজিটের নির্মাণ কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি জানান, মেট্রোরেলের কাজ শেষে হলে মাত্র ৩৮ মিনিটে উত্তরা থেকে মতিঝিলে যাওয়া সম্ভব হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকা শহরে অনেক মানুষের বাস। এখন মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে। একই পরিবারে একাধিক গাড়ি কেনা হচ্ছে। তবে রাস্তায় যারা গণপরিবহনে চলাচল করে, যানজটের কারণে তাদের দুর্ভোগে পড়তে হয়। ঢাকা শহরের যোগাযোগ ব্যবস্থা কীভাবে আরো উন্নত, কীভাবে আরো সহজ করা যায়, সেই লক্ষ্যে কাজ করা হচ্ছে।’

ঢাকা শহরের সঙ্গে সারা দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার সহজ করতে নানা প্রকল্পের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘ঢাকার চারপাশে বৃত্তাকার রেল, নৌ ও সড়কপথ গড়ে তোলা হবে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিআরটি প্রকল্প বাস্তবায়ন হলে প্রতি ঘণ্টায় ২৫ হাজার যাত্রী পারাপার সম্ভব হবে।’ বিআরটি প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয়েছে ২ হাজার ৪০ কোটি টাকা। সরকারের পাশাপাশি এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক, ফরাসি উন্নয়ন সংস্থা ও গ্লোবাল এনভায়রনমেন্টাল ফ্যাসিলিটি ফান্ড এতে অর্থায়ন করছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আঞ্চলিক যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতিতেও কাজ করছে সরকার। বাংলাদেশ-ভুটান-ভারত-নেপালের সঙ্গে সড়ক যোগাযোগ চুক্তি হয়েছে।’

এ সময় তিনি ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চার লেনে উন্নতি করার ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, ‘দক্ষিণাঞ্চলের দিকে কেউ তাকায় না। কিন্তু আমরা পুরো দক্ষিণাঞ্চলকে উন্নত যোগাযোগের আওতায় এনেছি। সেদিকে অনেক ব্রিজ-সেতু করে সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত করেছি। পটুয়াখালীতেও যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নতি করছি। পায়রা বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ হচ্ছে।’

ঢাকা জার্নাল, জুন ২৬, ২০১৬।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল