July 23, 2017, 8:54 pm | ২৩শে জুলাই, ২০১৭ ইং,রবিবার, রাত ৮:৫৪

শুক্রবার ঢাকায় আসছেন সানি লিওন!

tabarukat_4458247765133a8f573cd37.02591427.jpg_xlargeনিজস্ব গজব প্রতিবেদক, ঢাকা জার্নাল: শুক্রবার ঢাকায় পা রাখছেন হলিউড পর্ণ স্টার ভারতীয় বংশদ্ভুত সানি লিওন। তবে অনন্ত জলিলের টানে নয় ‍কিংবা বাংলাদেশি কোন যুবরাজের শয্যাশায়ী হতেও নয়। দেশের এক বিশিষ্ট্য জনের মুক্তির দাবিতে ৭২ ঘন্টার অনশনে যোগ দিতে আসছেন সানি লিওন। অনশন থেকে প্রেমিক পূরুষ দেলোওয়ার হোসেন সঈদীর মুক্তির দাবিও জানাবেন বলে শোনা যাচ্ছে।

মঙ্গলবার দেশের শীর্ষস্থানীয় রগকাটা সংগঠন ছাত্র শিবিরের আমন্ত্রনে সংগঠনটির সভাপতি দেলোয়ার হোসেনের মুক্তির দাবিতে গণ-অনশনে যোগ দিবেন সানি।

যদি সানির এই গণ-অনশনেও সরকার তাকে মুক্তি না দেয় তাহলে ভিন্নতর কঠোর আন্দোলনে অংশ নিবেন সানি লিওন।

saniবিশেষ সুত্রে জানা যায়, দেলোয়ার হোসেনের সঙ্গে বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে সানি লিওনের। এর আগেও কথা উঠেছিলো অনন্ত জলিলের সঙ্গে গোপন সম্পর্ক রয়েছে ভারতীয় বংশদ্ভুত এই পর্ণ স্টারের। তবে দেলোয়ারের মুক্তির দাবিতে অনশনের অংশ গ্রহণ করা নিয়ে একদিকে যেমন বিশ্ব বিনোদন মাধম্যে আলোড়ন উঠেছে, অনুরূপ বিশ্ব রাজনীতিতেও নিচ্ছে নতুন মোড়। হঠাৎ করে সানি লিওনের ঢাকায় আসা ও দেলোয়ার হোসেনের মুক্তির দাবিতে অনশন করা নিয়ে ভাবিয়ে তুলেছে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাকে।

হোয়াইট হাউজ সুত্রে জানা যায়, এরই মধ্যে সিনেট পর্যায়ে বৈঠক শেষ করেছেন ওবামা। ওবামা আশঙ্কা করছেন সানি লিওন কি sani 1মিডিয়া ছেড়ে রাজনীতিতে যাচ্ছেন নাকি, দেলোয়ার রাজনীতি ছেড়ে সানি লিওনের কো-অ্যাক্টর হচ্ছেন। এবিষয়ে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ’র প্রধানকেও ডেকেছেন ওবামা।

তবে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কি হচ্ছে সেটার চাইতে দেশের এই চলমান পরিস্থিতিতে সানির বাংলাদেশে আসা ও গণ-অনশনে অংশগ্রহণ করা নিয়ে চিন্তায় পড়েছে সরকার সমর্থিত ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

ছাত্রলীগের সুত্র থেকে জানা যায়, যদি সানি লিওন বাংলাদেশে আসে দেলোয়ারের মুক্তির দাবিতে তাহলে সে অনশনে উপচে পড়া মানুষের অংশগ্রহণ দেখা দিবে। আর জামায়াত নেতা মানবতা বিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আসামী প্রেমিক পূরুষ দেলওয়ার হোসেন সাঈদীর মুক্তির দাবি জানাতে হুমুড় খেয়ে পড়বে মানুষ।

এদিকে শিবিরের কেন্দ্রীয় সুত্রে জানা যায়, গণ অনশনে কাজ না হলে, সানি লিওন কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে প্রথমে এক বস্ত্রে পরে বিবস্ত্রে অবস্থান ধর্মঘট করতে বাধ্য হবেন। এরপরও যদি সরকার দেলোয়ার হোসেনকে ছেড়ে না দেয় তাহলে গণ-অনশনের পরিবর্তে গণ-ধর্ষনের শিকার হবে সানি। এটাই তার ভিন্ন ধরণের আন্দোলন।

তবে কি হবে আর কি হবে না তা দেখার জন্য সবাইকে অপেক্ষা করতে হবে শুক্রবার পর্যন্ত এবং চোখ রাখতে হবে ঢাকা জার্নালের পর্দায়।

লেখক- পাঞ্জেরী

(আজব গুজবের এই সংবাদের সঙ্গে ঢাকা জার্নালের মূল সংবাদের কোন সম্পর্ক নেই।)

ঢাকা জার্নাল, মার্চ ৩, ২০১৩

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল