June 29, 2017, 9:56 pm | ২৯শে জুন, ২০১৭ ইং,বৃহস্পতিবার, রাত ৯:৫৬

বাগান করা যেভাবে স্বাস্থ্যবান রাখতে পারে আপনাকে

gardenঢাকা জার্নাল: বাগান করা যদি আপনার শখের কাজ হয়ে থাকে তাহলে আপনি ইতিমধ্যেই জানেন যে এর ফলে আপনি সমস্যা থেকে দূরে থাকতে পারেন এবং সময়টাকে উপভোগ করতে পারেন। কিন্তু এর চেয়েও আরো অনেক বেশি উপকারি হতে পারে বাগান করা যা জানলে আপনি বিস্মিত হবেন। যদি আপনি হাত নোংরা করতে পছন্দ না করেন তাহলে ও যদি মাত্র ৩০মিনিট সময় বাগানের কাজ যেমন- গাছে পানি দেয়া, আগাছা পরিষ্কার করা, মাটি খনন করা ও গাছ রোপন করা ইত্যাদি করে অতিবাহিত করেন তাহলে তা আপনাকে অনেক বেশি সুস্থ থাকতে সাহায্য করবে। এবার আমরা সেই স্বাস্থ্য উপকারিতা গুলোর কথাই জানবো।

১। স্ট্রেস দূর করে

হরটটেকনোলোজি জার্নালে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানা যায় যে, বাগান করার কাজ করলে শুধুমাত্র স্ট্রেসই কমেনা কোলেস্টেরল ও ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রণেও সাহায্য করে। বাগানের কাজ করলে এন্ডোরফিনের নিঃসরণ বৃদ্ধি পায় এবং অক্সিজেন সংবহনের উন্নতি ঘটে। এর ফলে আপনার দেহ ও মন শান্ত হয়।

২। আলঝেইমার্স এর ঝুঁকি কমায়

বাগান করার মত সহজ কাজে লিপ্ত থাকলে মস্তিষ্কের আয়তনের উন্নতি ঘটে। ফলে আলঝেইমার্স এর ঝুঁকি ৫০% কমে যায়। আলঝেইমার্স ডিজিজ নামক জার্নালে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানা যায় যে, বাগানে সময় অতিবাহিত করলে শুধুমাত্র সংবেদনশীলতাই উদ্দীপিত হয়না বরং এমন একটি পরিবেশের সৃষ্টি হয় যার ফলে সুখ স্মৃতিও উদ্দীপিত হয়।

৩। ঘুমের সমস্যা দূর হয়

আপনার যদি ঘুমের সমস্যা থাকে তাহলে জিমে যাওয়া বা মর্নিং ওয়াকে যাওয়ার চেয়ে সকালে উঠে বাগানের কাজ শুরু করুন। এর ফলে কোন ঝামেলা ছাড়াই আপনার রাতের ঘুম ভালো হবে। এই তথ্যটি প্রকাশ করে স্লিপ ২০১৫। বাগানের কাজে শুধু শরীরের উপরই টান পরেনা মনকেও শিথিল করে।

৪। মন ভরে যাওয়ার অনুভূতি হয়

হেলথ সাকোলজি নামক জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণায় উল্লেখ করা হয়েছে যে, গারডেনিং এর ফলে সুখি হরমোন এন্ডোরফিনের নিঃসরণ বৃদ্ধি পায় এবং আপনাকে পুনরুজ্জীবিত হতে ও শান্ত হতে সাহায্য করে।

৫। ওজন কমতে সাহায্য করে

বাগানের কাজ করলে ওজন কমতে সাহায্য করে। দিনের যেকোন সময়ে বাগানে ১৫ মিনিট পানি দিলে ৪৫ ক্যালোরি খরচ হয়!

৫। সহানুভূতি শিক্ষা দেয়

বৈজ্ঞানিক গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে যে, যারা গাছের যত্ন নেয় তারা অন্যদের তুলনায় ভালোভাবে মানুষের সাথে সম্পর্ক তৈরি করতে পারে। তারা অন্যকে সাহায্য করতে পছন্দ করে। শিশুদের বাগান করার কাজে লাগালে তাদের শেখার দক্ষতা বৃদ্ধি পায়।

এছাড়াও বাগান করার কাজ করলে সেরোটোনিন ও ডোপামিনের নিঃসরণ বৃদ্ধি পায়, ইতিবাচক হতে শিখায়, এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরণা দেয়। তাই আপনার ঘরের পাশের খালি জায়গাটিতে অথবা ছাদে বাগান করুন ও সুস্থ থাকুন।

ঢাকা জার্নাল, মার্চ৩১, ২০১৬।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল