June 27, 2017, 9:30 am | ২৭শে জুন, ২০১৭ ইং,মঙ্গলবার, সকাল ৯:৩০

রাহার রহস্যজনক মৃত্যু, আঙ্গুল অনন্ত জলিলের দিকে!


jolil-wifeঢাকা জার্নাল: 
গত শুক্রবার রাতে নায়িকা বর্ষা মোহাম্মদপুর থানায় একটি জিডি করেন। অভিযুক্তের নাম, তারই পতিদেবতা অনন্ত জলিল! অভিযোগ, অনন্ত জলিল তাকে শারিরীক এবং মানসিক নির্যাতন করেছে।

জানা গেছে, একই দিনে বিকেলে অনন্তও বর্ষার বিরুদ্ধে থানায় জিডি করেন। অভিযোগ, বর্ষার নাকি নানান ধরনের চারিত্রিক সমস্যা আছে!

এ ঘটনার পরেই মিডিয়ায় আরেকটি বোমা ফাটলো! শনিবার লাক্সতারকা রাহার রহস্যজনক মৃত্যু।

এককথায় বলা যায়, গত দু’দিন ধরে বাংলাদেশী মিডিয়ার জন্য সময়টা ভালো যাচ্ছে না। সেই সাথে ভালো যাচ্ছেনা অনন্ত জলিলের সময়টাও।

ঘটনার শেষ এখানেই নয়। পরের খবরটা আরো জটিল। শোনা যাচ্ছে রাহা’র মৃত্যুতে নায়ক অনন্ত জলিলেরই নাকি হাত আছে! যাই হোক, ব্যাপারটা তাহলে খোলাসা করাই যাক।

বলা হচ্ছে, লাক্সতারকা সুমাইয়া আজগার রাহার (২৫) ‘আত্মহত্যার রহস্যজট খুলতে শুরু করেছে। এর পেছনের কারণ হিসেবে ত্রিভুজ প্রেমের কথা শোনা যাচ্ছে মিডিয়া পাড়ায়। মিডিয়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, আলোচিত সিনেমা ‘খোঁজ-দ্য সার্চ’-এ অভিনয়ের সূত্র ধরে অনন্তের সঙ্গে রাহার পরিচয় হয়।

পরবর্তিতে দুজনের এ সম্পর্ক রুপ নেয় প্রেমে। তাদের এ ঘনিষ্ট সম্পর্কের কথা জেনে যান অনন্তের স্ত্রী বর্ষা। আর এর জেরেই দুজনের মধ্যে কলহ লেগে থাকে। এর জেরে দুজনই দুজনের বিরুদ্ধে পাল্টাপাল্টি জিডিও করেছেন সম্প্রতি।

এমন পরিস্থিতিতে অনন্ত ও বর্ষা দুজনের পক্ষ থেকেই নাকি রাহার ওপর বিভিন্ন চাঁপ আসছিলো। এক পর্যায়ে চাপ সহ্য করতে না পেরে সে আত্মহত্যা করে। রাহার ঘনিষ্ঠজনরা এমনটাই বলছেন। তবে পরিবারের পক্ষ থেকে এখনো কেউ মুখ খুলছেন না।

শুক্রবার রাতে নিজ বাসাতেই অনেকটা রহস্যজনকভাবে মারা যান রাহা। রাহার এই হঠাৎ মৃত্যুর ঘটনা মিডিয়ার কেউ না জানার আগেই শনিবার দুপুরে অনেকটা চুপিসারে তাকে আজিমপুর কবরস্থানে কবর দেওয়া হয়। তার মৃত্যুর বিষয়টি পরিবার ও কাছের কয়েকজন সহকর্মীরা জানলেও মিডিয়ার কাছে গোপন রাখেন।

এক ভাই ও তিন বোনের মধ্যে বাবা-মার বড় সন্তান রাহা লালমাটিয়া কলেজের ছাত্রী। সে রাজধানীর আদাবর থানাধীন জাপান গার্ডেন সিটিতে পরিবারের সঙ্গেই থাকতেন।

তবে বেশ কিছুদিন ধরে বাবা-মার বাসায় তিনি যেতেন না। অন্য এক কোনো বন্ধুর বাসায় থাকতেন। সবার ধারণা অনন্ত’র দেয়া কোনো একটি ফ্ল্যাট তিনি বসবাস করতেন।

তবে, অনন্তর শুভাকাঙ্খীরা এ ব্যাপারটিকে তুরি মেরেই নাকচ করে দিয়েছেন। তাদের দাবি, সেলিব্রেটি অনন্ত দ্য জলিলের নামে স্ক্যান্ডাল ছড়াতেই এমন গুজব ছড়ানো হয়েছে।

ঢাকা জার্নাল/তাহা, মার্চ ২৫, ২০১৩

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল