June 28, 2017, 11:35 am | ২৮শে জুন, ২০১৭ ইং,বুধবার, সকাল ১১:৩৫

হোয়াইট হাউসে মিশেল ওবামার নাচ!

159854281_480x360ঢাকা জার্নাল: জিমি ফ্যালন’র লেট নাইট কমেডি শো’তে অ্যামেরিকার ফার্স্ট লেডির নাচ যে ইউটিউবে ভাইরাল হয়ে যাবে, শুক্রবার যাবৎ প্রায় দশ লাখ ভিউয়িং, হাজার দশেকের বেশি লাইকস – তা কে ভাবতে পেরেছিল!

জিমি ফ্যালন আবার ‘ড্র্যাগ’, মানে মহিলার সাজে ছিলেন৷ তিনি এবং মিশেল ওবামা, দু’জনেই স্ল্যাক্স আর কার্ডিগান পরে; ফ্যালনের মাথায় আবার বাদামি চুলের পরচুলা৷ দু’জনে মিলে যে ড্যান্স রুটিনটি নাচেন, তার নাম রাখা হয়েছিল ‘এভেলিউশন অফ মম ড্যান্সিং’, মানে ‘মা’য়ের নাচের বিবর্তন’৷

এই নাচ অবশ্য একটি সৎ কাজে: মিশেল ওবামা কিশোর-তরুণদের ফিটনেস এবং সঠিক, পুষ্টিকর খাওয়া-দাওয়ার জন্য যে অভিযানটি চালাচ্ছেন, তার নাম হল ‘লেটস মুভ!’ ফ্যালনের সঙ্গে তাঁর নাচ সেই অভিযানের প্রচারণার অঙ্গ৷

শুক্রবার রাত্রে মিশেল ওবামার সে’ নাচ দেখা যায় টেলিভিশনের পর্দায়৷ শনিবার তা ইউটিউবে ওঠে – এবং ভাইরাল বা সংক্রমিক হয়ে যায়৷ মিশেল আর ফ্যালন নাচছেন, স্ক্রিনের তলার স্ক্রলে সেই নাচের নাম দেখানো হচ্ছে: ‘‘বাজারে যাও, সবজি কেনো,” ইত্যাদি৷

যাই হোক, এমনিতেই মিশেল ওবামা গত চার বছর ধরে ফ্যাশন আইকন: তিনি যে জামাকাপড়ই পরেন এবং তাঁর দুই মেয়ে – ক্ষেত্রবিশেষে স্বামীকেও – পরান, সেটাই কেনার জন্য হুড়োহুড়ি পড়ে যায়৷ সে’ ডিজাইনার বাজারে নাম করে ফেলে৷ এক কথায়, খোদ বারাক ওবামার চেয়ে তাঁর ফার্স্ট লেডির ফ্যানদের সংখ্যা অ্যামেরিকায় বেশি বৈ কম নয়৷ মিশেলের নাচের ভিডিও দেখেও এবার সাইবার জগৎ উচ্ছ্বসিত৷

শো’র পর মিশেল অবশ্য নাচের প্রসঙ্গে বেশি বলতে চাননি৷ শুধু এ’টুকু বলেছেন: তাঁর স্বামীর নৃত্যশৈলী বড়জোর সেকেন্ড ডিভিশন পাবার মতো৷ ওবামার নাকি ‘‘গোটা তিনেক মুভ” – মানে মুদ্রা কিংবা অঙ্গভঙ্গী আছে, তার বেশি নয়৷

অপরদিকে মিশেল তিন বছর ধরে ছোটদের পুষ্টি ও শারীরিক কসরতের প্রয়োজন নিয়ে অভিযান চালাচ্ছেন৷ অভিযানের পটভূমিতে রয়েছে মার্কিনিদের – যেমন বড়. তেমনি ছোট – জাঙ্ক ফুড খাওয়া এবং একেবারে নড়াচড়া না করার প্রবণতা, যার ফলে দেশের অর্ধেক মানুষ মেদবাহুল্যে ভুগছে৷ সূত্র: িইন্টারনেট

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল