July 23, 2017, 8:56 pm | ২৩শে জুলাই, ২০১৭ ইং,রবিবার, রাত ৮:৫৬

ফর্মুলা ওয়ানে রেসে এবার আরো প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে!

hi-res-145357922_crop_exact-350x193ঢাকা জার্নাল: এবার ফর্মুলা ওয়ান রেসে আরো নিকটতম প্রতিদ্বন্ধিতা হবে বলে মন্তব্য করেছেন গত তিনবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানী রেড বুলের চালক সেবাস্টিয়ান ফেটে। এবারেও তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ফেরারির ফ্যার্নান্দো আলন্সো, দু-দু’বার যাকে সিজনের চূড়ান্ত রেসে হারিয়েছেন ফেটেল৷

গত মরশুমে ব্রাজিলে ফর্মুলা ওয়ান সিজনের শেষ দৌড়ে স্পেনের ফ্যার্নান্দো আলন্সোকে হারিয়ে মাত্র তিন পয়েন্টের ব্যবধানে চ্যাম্পিয়ন হন সেবাস্টিয়ান ফেটেল৷ এবার তিনি পর পর চারটি খেতাব জয়ের প্রচেষ্টায় থাকবেন, যদিও ফেটেলের বয়স মাত্র ২৫৷ তাঁর আগে মাত্র দু’জন চালক এই অসাধ্যসাধন করতে পেরেছেন, এবং দু’জনেই ফর্মুলা ওয়ানের কিংবদন্তি বিশেষ৷ প্রথমজনের নাম হুয়ান মানুয়েল ফাঞ্জিও৷ দ্বিতীয়জনের: মিশায়েল শুমাখার৷

ফেটেল এবং আলন্সো দু’জনেই জানেন, তাঁদের মধ্যেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে৷ কাজেই আপাতত তাঁরা দু’জনে পরস্পরের প্রশংসা করতেই ব্যস্ত৷ ওদিকে শুক্রবারই মেলবোর্নের অ্যালবার্ট পার্ক স্ট্রিট সার্কিটে প্রথম প্র্যাকটিস সেশন৷ ১৯টি রেসের ফর্মুলা ওয়ান মরশুম শুরু হয় ‘ডাউন আন্ডার’ অস্ট্রেলিয়ায়৷ শনিবার কোয়ালিফাইং৷ রবিবার এস্পার কি ওস্পার৷

টায়ার নিয়ে চিন্তা

আলন্সোর এবার খেতাব জেতার সম্ভাবনা গত মরশুমের চেয়ে অনেক বেশি বলে মনে করছেন পণ্ডিতরা, বিশেষ করে প্রাক-মরশুম পরীক্ষায় ফেরারির গাড়িগুলিকে ২০১২’র বিভীষিকাময় শীতের তুলনায় খুবই লড়াকু মনে হওয়ায়৷

রেড বুলের ব্যাপারটা আবার আলাদা৷ প্রি-সিজন টেস্টিং’এ গাড়িতে হেভি ফুয়েল লোড – মানে বেশি তেল নিয়ে তাদের ল্যাপটাইম খুব চমকপ্রদ হয়নি বটে৷ কিন্তু রেসের কোয়ালিফাইং’এ সেই গাড়িই কম তেলের লোড নিয়ে দুর্দান্ত সব টাইম করে৷ এবং শনিবারও যে ঠিক তাই ঘটবে না, সেটা বলবে কে? কাজেই রেড বুলের প্রতিদ্বন্দ্বীদের না আঁচালে বিশ্বাস নেই৷

ফেটেল কিন্তু বলছেন, এবারকার শীতে টেস্টিং থেকে স্পষ্ট কিছুই বোঝা যায়নি৷ তার কারণ হল নতুন হাই-ডিগ্রেডেশন টায়ারগুলো, যেগুলো অনেক তাড়াতাড়ি ক্ষয়ে যায়৷ শীতের টেস্টিং’এ সেটাই নাকি ছিল রেড বুলের প্রধান সমস্যা৷ এবং এই পরিস্থিতির উন্নতি না ঘটলে ‘‘ব্যাপারটা খুব মজার হবে,” বলেছেন সেবাস্টিয়ান ফেটেল৷

সমাধি থেকে মহিলা সারথী

ফর্মুলা ওয়ানের গল্প-কাহিনি শুধু ট্র্যাকে এবং সার্কিটে সীমাবদ্ধ নয়৷ তাই এটাও বলা দরকার যে, উইলিয়ামসের চালক পাস্তর মালদোনাদো উগো চাবেসের সমাধি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করার মাত্র কয়েকদিন পরেই পৃথিবীর অন্য পিঠে অস্ট্রেলিয়ায় মোটর দৌড়ে অংশগ্রহণ করছেন৷ উগো চাবেসের কল্যাণেই তিনি ফর্মুলা ওয়ান গাড়ি চালানোর সুযোগ পান৷ চাবেস মোটর রেসিং’এর ভক্ত ছিলেন, ভেনেজুয়েলার তেল কোম্পানিকে মালদোনাদো’র স্পন্সর করে দিয়েছিলেন৷

এছাড়া ফর্মুলা ওয়ানের সুপ্রিমো বার্নি একেলস্টোন বলেছেন যে, তিনি মার্কিন মুলুকে ইন্ডি কার এবং ন্যাসকার দৌড়ের মহিলা গাড়িচালক ড্যানিকা প্যাট্রিককে ফর্মুলা ওয়ানে আনতে চান৷ তা’তে নাকি ফ্যান আর স্পন্সরদের সংখ্যা বাড়বে৷

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *



এই পাতার আরো খবর -

জার্নাল